মা-বাবাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ছেলে

মা-বাবা
মা-বাবাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ছেলে  © সংগৃহীত

শরীয়তপুরে জমি লিখে না দেওয়ায় ছেলে ও তার বউ মিলে বৃদ্ধ মা-বাবাকে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে ফেলেছে। বর্তমানে ওই বৃদ্ধ দম্পতি জেলার সদর হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার বিলাশপুর ইউনিয়নের সারেংকান্দি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বৃদ্ধ দম্পতির নাম একাব্বর মাল (৬০) ও ফুলমতি বেগম (৫০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, একাব্বর-ফুলমতি দম্পতির চার মেয়ে, দুই ছেলে। বড় ছেলে শরীফ মাল তিন বছর আগে বিয়ে করে আলাদা সংসার বাধেন। গত কয়েকদিন ধরে শরীফ তার নামে জমি লিখে দিতে মা-বাবার উপর চাপ দেন। তবে তার বাবা-মা সেটি করতে অস্বীকৃতি জানায়। এতে প্রায় শরীফ তারা মা-বাবাকে মারধর করত।

ঘটনার দিন ফুলমতির সাথে শরীফের স্ত্রীর কথা কাটাকাটি হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শরীফ তারা মা-বাবাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দেয়। শরীফের লাঠির আঘাতে ফুলমতি বেগমের মাথা ফেটে যায়। পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহাবুবুর রহমান বলেন, মা-বাবকে মারধর করার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।অ এ বিষয়ে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। অভিযুক্তদের ধরতে ওই গ্রামে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে তারা গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে।


মন্তব্য