স্কুলছাত্রী দিথীর হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি

স্কুলছাত্রী দিথীর হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন
স্কুলছাত্রী দিথীর হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন  © টিডিসি ফটো

ঝালকাঠীর নলছিটি উপজেলার রায়পাশা এলাকায় ধর্ষণ চেষ্টার শিকার মেধাবী ছাত্রী হাফসা আক্তার দিথীকে আত্মহননে প্ররোচিত করার মামলার আসামি সন্ত্রাসী মামুন হাওলাদারের কঠোর শাস্তির দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন হাফসা আক্তার দিথীর বাবা নান্টু হাওলাদার, দিথীর মা মর্জিনা বেগম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ বরিশাল জেলার আহ্বায়ক ইমরান হাবিব রুমন, সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী, দিথীর ফুপু খাদিজা বেগম, মামা মাহফুজ হাওলাদার, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সহসভাপতি মাফিয়া আক্তার প্রমুখ।

দিথীর বাবা-মা মামুনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে এই সন্ত্রাসী মামুন তাদের মেয়েকে নানাভাবে উত্যক্ত করে আসছিল। বিষয়টি মামুনের পরিবারকে জানানোর পরও কোন ব্যবস্থা নেয়নি।

তারা বলেন, গত ৩০ ডিসেম্বর তারিখে রাত ৮টার দিকে আমরা চাকুরির কাজে বরিশাল শহরে আসলে বাসায় কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে দিথীকে যৌন নির্যাতন করে। সেই অপমান সহ্য করতে না পেরে দিথী আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।

মামুনের বাবারও গ্রেফতার দাবি করে দিথীর বাবা-মা বলেন, হত্যাকারী মামুন গ্রেফতার হলেও মামুনের বাবা ক্রমাহতভাবে মামলা তুলে না নিলে আমাদেরকেও হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তাই আমাদের পরিবারের সবার নিরাপত্তার জন্য মামুনের বাবাকেও গ্রেফতার করতে হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ ডিসেম্বর নলছিটির রায়পাশা সৈয়দ আব্দুল লতিফ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী হাফসা আক্তার দিথী সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা করে। নোটে তাকে সন্ত্রাসী মামুন হাওলাদার ধর্ষণ চেষ্টা করে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

এ ঘটনায় ৩ জানুয়ারী দিথীর বাবা নান্টু হাওলাদার বাদী হয়ে মামুনকে একমাত্র আসামী করে আত্মহত্যা প্ররোচনার একটি মামলা দায়ের করেন। থানা পুলিশ গত ১১ জানুয়ারি মামুনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করে।

বাসদের সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী বলেন, এই মামুনদের মতো ধর্ষক-খুনিদের বিচার এবং সর্বোচ্চ শাস্তি না হওয়ায় স্বাধিনতার ৫০ বছরে প্রতিটি জেলায়, পাড়া-মহল্লায় এইরকম হাজারো মামুন তৈরি হচ্ছে। তাই অবিলম্বে দ্রুত বিচার আইনে মামুনের সর্বোচ্চ দিয়ে উদাহরণ তৈরি করা উচিত।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ