যেসব জিনিস ভুলেও মাইক্রোওয়েভে দেবেন না

টিপস ও টিউটোরিয়াল
মাইক্রোওয়েভ  © সংগৃহীত

ব্যস্ত জীবনকে সহজ করতে ঝটপট খাবার গরম করার পাশাপাশি ঝামেলাহীন উপায়ে রান্না করতে মাইক্রোওয়েভ ওভেনের জুড়ি নেই। ব্রেক, তন্দুরিসহ নানা রকম মজার মজার সব বেকিং আইটেম তৈরির জন্যও মাইক্রোওয়েভ বেশ দরকারি।

তবে নিত্য প্রয়োজনীয় এই জিনিসটিতে  কিছু জিনিস আছে যা ব্যবহার করা চরম বিপত্তি ডেকে আনতে পারে।ভুল খাবার বা ভুল জিনিস দিলে যন্ত্রটি উল্টো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যাবে। আমরা অনেকেই ভুল বশত এই জিনিসগুলো মাইক্রোওয়েভ ওভেনে দিয়ে থাকি। যার ফলে হঠাৎ আগুন লেগে দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার মতো অবস্থা তৈরী হতে পারে। আর এ অবস্থা এড়াতে চাইলে আমাদেরকে থাকতে হবে সচেতন।

মাইক্রোওয়েভে কোন জিনিসগুলো একেবারেই দেওয়া যাবে না জেনে নিন সেটা-

১। অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল: মাইক্রোওয়েভের ভেতর অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দেবেন না। এটি খুব পাতলা মেটালের তৈরি যা ওভেনের রেডিয়েশনে আগুনের ফুলকি তৈরি করে। ফলে মাইক্রোওয়েভ নষ্ট হয়ে যাওয়া কিংবা আগুন ধরে যাওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়।

২। স্টেইনলেস স্টিলের বস্তু: স্টেইনলেস স্টিলের তৈজস দেবেন না। এ ধরনের তৈজস মাইক্রোওয়েভের ভেতরে রাখলে তা রেডিয়েশন পাত্রের মধ্যে প্রবেশ করতে দেয় না ও তাপ প্রতিফলিত করে। 

৩। প্লাস্টিকের বস্তু: পাতলা প্লাস্টিকের বোতল বা ওয়ান টাইম ইউজ প্লাস্টিকের বাটি, প্লেট বা গ্লাস কখনও দেবেন না ওভেনের ভেতর। এ ধরনের পাতলা প্লাস্টিক গলে যায় সহজেই। 
মাইক্রোওয়েভে পানি না দেওয়াই ভালো। অতিরিক্ত গরম হয়ে পানি ছিটকে পড়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে সামান্য অসাবধানতায়।

৪। আস্ত কাঁচা ডিম: মাইক্রোওয়েভে আস্ত ডিম হার্ড বয়েল করবেন না। এতে ডিমের মধ্যে ধোঁয়া জমে ও ডিম শক্তিশালী হয়ে ছিটকে আসে।

৫। ব্রকোলি: জার্নাল অব দ্য সায়েন্স অব ফুড অ্যান্ড এগ্রিকালচার বলছে, মাইক্রোওয়েভে ব্রকোলি দিলে পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। 

৬। বরফযুক্ত মাংস: বরফযুক্ত মাংস রান্না হতে সময় বেশি লাগে। যখন ৪০-১৪০ ফারেনহাইটে মাংস রান্না করা হলে এর ব্যাকটেরিয়াগুলো তিন গুন বেড়ে যায়। আবার এক জাপানি গবেষণায় দেখা গেছে যে মাংস ৬ মিনিটের বেশি সময় ধরে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে রান্না করলে এর ভিটামিন অনেক কমে যায়। তাই মাংস ফ্রিজ থেকে বের করার সাথে সাথে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে রান্না না করে কিছুক্ষণ বরফ গলতে দিন। মাংস খুলে গেলে তারপর রান্না করুন।

আরও পড়ুন: ৪ স্ক্রিনে ঢাকা কলেজ ভেন্যু থেকে সমাবর্তনে যুক্ত হবেন ৭ কলেজ শিক্ষার্থীরা।

৭। টক দইয়ের ক্যান: ওয়ান টাইম ব্যবহারযোগ্য প্লাষ্টিক কনটেইনার যেমন টক দই, ক্রিম বা অন্য কিছুর কনটেইনার মাইক্রোওয়েভ ওভেনে ব্যবহার করা যাবে না। এগুলো শুধু একবার মাত্র ব্যবহারযোগ্য উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয়। যার ফলে এই কনটেইনারগুলোর ক্রেমিক্যাল উপাদানগুলো মাইক্রোওয়েভ ওভেনের তাপে গলে খাবারের সাথে মিশিয়ে যায়।

৮। আঙ্গুর এবং কিশমিশ: আঙ্গুর এবং কিশমিশ এক সাথে মাইক্রোওয়েভ ওভেনে দিবেন না। তারা একসাথে প্লাজমা উৎপাদন করে থাকে। কিশমিশ থেকে ধোঁয়া উৎপাদন করে এমনকি মাইক্রোওয়েভ ওভেনে আগুনও ধরাতে পারে।

৯। চায়না বা ডিজাইন সিরামিক প্লেট: মেটালিক ডিজাইন করা সিরামিক প্লেট বা চায়না প্লেট মাইকোওয়েভ ওভেনে ব্যবহার করবেন না। মাইক্রোওয়েভ ওভেনের তাপে মেটালিকের সাথে প্রতিক্রিয়া করে মাইক্রোওয়েভ ওভেনের ক্ষতি করে থাকতে পারে।

১০। লাল শুকনা মরিচ: আপনি কি শুকনা লাল মরিচ মাইক্রোওয়েভ ওভেনে গরম করার কথা ভাবছেন? ভুলেও এই কাজটি করবেন না। লাল শুকনা মরিচের কারণে আগুন ধরে যেতে পারে আপনার মাইক্রোওয়েভ ওভেনে।


x

সর্বশেষ সংবাদ