মোশাররফ রুবেলের কবর স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের নির্দেশ

মোশাররফ রুবেলের কবর স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের নির্দেশ
মোশাররফ রুবেলের কবর স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের নির্দেশ  © ফাইল ফটো

বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার সদ্যপ্রয়াত মোশাররফ হোসেন রুবেলের কবরটি মানবিক বিবেচনায় স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ করতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সংশ্লিষ্ট বিভাগকে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। রোববার (২৪ এপ্রিল) ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন থেকে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

মোশাররফ হোসেনের স্ত্রী চৈতি ফারহানা মিডিয়ার মাধ্যমে রুবেলের কবরটি স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের জন্য মেয়রের প্রতি মৌখিকভাবে আবেদন জানান। পরে মেয়র মিডিয়ার মাধ্যমে আবেদনটি জেনে কবরটি সংরক্ষণ করতে এই নির্দেশনা প্রদান করেন।

মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এ মুহূর্তে ওমরাহ পালনে পবিত্র নগরী মক্কায় অবস্থান করছেন। ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেলের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে মেয়র গণমাধ্যমকে বলেন, মোশাররফ হোসেন রুবেল নিজের জন্য খেলেননি, দেশের জন্য খেলেছেন। তার অবদান দেশের মানুষকে গর্বিত করেছে। সে কারণে তার কবরটি স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ করা আমাদের দায়িত্ব বলে মনে করছি।

আরও পড়ুন: ক্রিকেটের মাঠ থেকে হাসপাতালের বেডে ঢাবি শিক্ষার্থী মোশাররফ

ক্রিকেটার রুবেলের স্ত্রী ও শিশুসন্তানের বিষয়টি মানবিক বিবেচনায় নিয়ে মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘যে মানুষটি বিশ্বজুড়ে বাংলাদেশের সুনাম ছড়িয়ে দিয়েছেন, সে মানুষটি চিরবিদায়ের বেলায় এক টুকরো মাটি পাবে না, তা হতে পারে না।’

এর আগে, ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে গত ১৯ এপ্রিল জীবনের মায়া ত্যাগ করেন ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেল। মিরপুরে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয় বনানী কবরস্থানে। নিয়মানুযায়ী এখানে কবরের স্থায়িত্বকাল দুই বছর। কিন্তু রুবেলের স্ত্রী চৈতি ফারহানা রূপা সারা জীবন স্বামীর কবরটি দেখতে চান। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে কবরটি স্থায়ী করার আকুতি জানান তিনি।


x