মার্চেই বকেয়া উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা

প্রাথমিক শিক্ষার্থী
চলতি মাসেই উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা  © ফাইল ফটো

প্রায় এক বছর বন্ধ থাকার পর ফের প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি ‍বিতরণ শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে গত বছরের এপ্রিল, মে ও জুনের উপবৃত্তির টাকা ছাড় হয়েছে। আগামী ১৫ মার্চের মধ্যে এ টাকা পরিশোধ হয়ে যাবে বলে জানা গেছে। এছাড়া গত বছরের বাকি ছয় মাসের টাকাও চলতি মাসের মধ্যে দেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে তিন হাজার ৫০০ কোটি টাকা উপবৃত্তি ও কিডস অ্যালাউন্সের জন্য ছাড় করা হয়েছে। ওই টাকা থেকে প্রাথমিকের এক কোটি ১০ লাখ শিক্ষার্থীর কিডস অ্যালাউন্স বাবদ প্রায় এক হাজার ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হবে। পাশাপাশি উপবৃত্তির তিন কিস্তির বকেয়া টাকা পরিশোধ করা হবে।

সূত্র আরও জানায়, তিন মাস অন্তর প্রতি কিস্তি উপবৃত্তি বিতরণ করতে প্রায় সাড়ে চারশ’ কোটি টাকার প্রয়োজন হয়। সে হিসেবে বছরে চার কিস্তিতে প্রয়োজন হয় এক হাজার ৮০০ কোটি টাকা। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, প্রাথমিকের সব শিক্ষার্থীকে জামা, জুতা কিনতে এককালীন এক হাজার করে টাকা দেওয়া হবে। এতে আরও এক ১০০ কোটি টাকা লাগবে।

এ প্রসঙ্গে প্রাথমিক উপবৃত্তি প্রদান প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. ইউসুফ আলী গণমাধ্যমকে বলেন, নানা জটিলতায় ৯ মাসের উপবৃত্তি বকেয়া হয়ে যায়। এর মধ্যে এপ্রিল, মে জুনের বকেয়া টাকা ছাড় হয়েছে। এ টাকা শিক্ষার্থীদের কাছে বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান নগদ দ্রুত পৌঁছে দেবে। গত বছরের বাকি ছয় মাসের টাকাও বিতরণের জন্য প্রস্তুতি শুরু করেছি। এখনও যাদের নগদের সার্ভারে তথ্য এন্ট্রি দিতে বাকি আছে তাদের জন্য ১৫ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছে। এর মধ্যে নগদের পোর্টাল উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

জানা গেছে, প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদেরকে জনপ্রতি ৫০ টাকা হারে উপবৃত্তি দেওয়া হতো। এখন তা বেড়ে ৭৫ টাকা হয়েছে। এছাড়া প্রাথমিকের এক সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের মাসিক উপবৃত্তি ১০০ থেকে ১৫০ টাকা করা হয়েছে। আর দুই সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের ৩০০ টাকা, তিন সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের ৪০০ টাকা এবং চার সন্তান বিশিষ্ট পরিবারের উপবৃত্তি ৫০০ টাকা করেছে সরকার।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ