ঈদগাহের জন্য ৪ বিঘা জমি দিলেন দুই হিন্দু বোন

মাঠ
ঈদের নামাজ আদায়  © ফাইল ফটো

মারা যাওয়ার আগে বাবা ঈদগাহের জন্য জমি দেয়ার শেষ ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন। তিনি মারা যাওয়ার পর সেই ইচ্ছা পূরণ করলেন তার দুই মেয়ে।

এনডিটিভির খবর অনুযায়ী, দুই হিন্দু বোন বাবার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী স্থানীয় ঈদগাহ’র জন্য দেড় কোটি রূপিরও বেশি মূল্যের চার বিঘা জমি দান করেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় মুসলিমরা ঈদের দিন ওই মৃত ব্যক্তির জন্য আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনা ভারতের উত্তরাখণ্ডের উধম সিং নগর জেলার ছোট একটি শহর কাশিমপুরের। ভারতের বিভিন্ন অংশ থেকে যখন সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার খবর সামনে আসছে ঠিক তখনই দুই বোনের এমন কাজ দেশজুড়ে বেশ প্রশংসা কুড়াচ্ছে।

যিনি ওই জমি দান করেছেন তার নাম ব্রজনন্দন প্রসাদ রাস্তোগি। তিনি ২০ বছর আগেই মারা গিয়েছেন। মৃত্যুর আগে তিনি তার নিকটাত্মীয়দের বলেছিলেন, তিনি তার চার বিঘা কৃষি জমি একটি ঈদগাহের সম্প্রসারণের জন্য দান করতে চান।

আরও পড়ুন: আজ থেকে ৩ দিন বন্ধ ডাচ-বাংলার এটিএম বুথ

যদিও তিনি তার সন্তানদেরকে নিজমুখে নিজের শেষ ইচ্ছা বলে যেতে পারেননি। ২০০৩ সালের জানুয়ারিতে মারা যান তিনি।

তার দুই মেয়ে সরোজ এবং অনিতা, যারা দিল্লি এবং মিরাটে থাকেন, সম্প্রতি আত্মীয়দের কাছ থেকে তাদের বাবার শেষ ইচ্ছার কথা জানতে পারেন।

এ কথা জানার পর তারা অবিলম্বে কাশিপুরে বসবাসকারী তাদের ভাই রাকেশ রাস্তোগির সঙ্গে যোগাযোগ করে তার সম্মতি চান। তিনিও সহজেই সম্মত হন।

রাকেশ রাস্তোগির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বাবার শেষ ইচ্ছাকে সম্মান জানানো আমাদের কর্তব্য ছিল। আমার বোনেরা এমন কিছু করেছে যা তার আত্মাকে শান্তি দেবে।

ঈদগাহ কমিটির হাসিন খান বলেন, ‘দুই বোন সাম্প্রদায়িক ঐক্যের একটি জীবন্ত উদাহরণ। ঈদগাহ কমিটি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। তারা যা করেছে তার জন্য শিগগিরই দুই বোনকে পুরস্কৃত করা হবে।’


x

সর্বশেষ সংবাদ