স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ৩

ভাইরাল
স্কুলছাত্রকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন  © সংগৃহীত

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ভৈরবপুরে পাওনা টাকার জন্য এক স্কুলছাত্রকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার (৩ মে) নির্যাতনের ঘটনায় শুক্রবার (৬ মে) তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত তিনজন হলেন- নাহিদুল ইসলাম (২০), নাজমুল হোসেন (২৩) এবং জসিমউদদীন (২৮)।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রের বাবা জানান, কিছুদিন আগে ভৈরবপুর গ্রামের দুলু মিয়ার ছেলে নাহিদুলের দোকান থেকে আমি একটি খাট বানিয়ে নিয়েছিলাম। সব টাকাই পরিশোধ করেছিলাম। শুধু ৪৫০ টাকা বাকি ছিল। ঈদের কয়েকদিন আগে নাহিদুল আমার বাড়িতে এসে টাকার জন্য গালাগাল করে। আমি তাকে বিনয়ের সাথে বলি যে, কয়েকদিন আগে আমার ছোট ছেলে পানিতে ডুবে মারা গেছে। এখন টাকা নেই। এক সপ্তাবের মধ্যে টাকা দিয়ে দেব। তাও সে আমাকে গালি দেয়।

তিনি আরও জানান, ঈদের দিন আমার ছেলে তার বন্ধুদের সাথে ঘুরতে গিয়েছিল। তখন নাহিদুল ও তার লোকজন অস্ত্রের মুখে আমার ছেলেকে জিম্মি করে নিয়ে যায়। আসামিদের মধ্যে নাজমুল তার বাড়িতে আমার ছেলেকে নিয়ে যায়। সেখানে গাছের সাথে বেঁধে আমার ছেলেকে নির্যাতন করা হয়। এই ঘটনা আমি জানার পর থানায় ফোন দেই। পরে ইউপি সচিব ও গ্রাম্য পুলিশ গিয়ে আমার ছেলে উদ্ধার করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে করে কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার বলেন, স্কুলছাত্রকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের কয়েকটি ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এটি আমাদের পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টিতে আসার মাত্র দুই ঘণ্টার মধ্যে অভিযান তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।


x