এইচএসসি পরীক্ষাও পেছাতে পারে

এইচএসসি
এইচএসসি পরীক্ষার্থী  © ফাইল ছবি

দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় আগামী ১৯ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। এই অবস্থায় পেছানো হতে পারে এইচএসসি পরীক্ষাও।

শুক্রবার (১৭ জুন) দুপুরে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড সাব কমিটির সভাপতি এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

তিনি বলেন, বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। এই অবস্থায় আমাদের এইচএসসি পরীক্ষাও পেছানো হতে পারে। কেননা এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার মাঝে একটি বড় ধরনের বিরতীর প্রয়োজন হয়। পরীক্ষা সংক্রান্ত আনুষাঙ্গিক কাজ করতে আমাদের দুই মাসের মতো বিরতী লাগে। ফলে এসএসসি পরীক্ষা পেছানোয় স্বাভাবিকভাবেই এইচএসসি পরীক্ষাও পেছানো হতে পারে।

আরও পড়ুন: সুনামগঞ্জে প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবলে ঢাবির ২১ শিক্ষার্থী

এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় আগামী ১৯ থেকে অনুষ্ঠিতব্য সকল শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি জেনারেল, এসএসসি ভোক এবং দাখিল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচী পরে জানানো হবে। 

এদিকে, শুধুমাত্র সিলেট অঞ্চলের বন্যায় তলিয়ে যাওয়া প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের ২৯০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ করা হয়েছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় তলিয়ে যাওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বন্যার পানির কারণে এখানকার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে তৈরি হয় উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। অনেকে পরীক্ষা স্থগিতের দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের কারণে সিলেট ও সুনামগঞ্জের বেশ কয়েকটি উপজেলা বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। আজ শুক্রবার সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। বানভাসি মানুষকে উদ্ধারে কাজ শুরু করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এছাড়াও ভারী বর্ষণ ও উজানের ঢলে কুড়িগ্রামে ধরলা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।


x