গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ প্রস্তুতি (বিজ্ঞান)

ভর্তি প্রস্তুতি
পরীক্ষার্থী ও লেখক এইচ এম মহসিন  © ফাইল ফটো

এ বছর সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিসহ ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় একসাথে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা নেবে। ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে কর্তৃপক্ষ মানবন্টনসহ যাবতীয় বিষয়াবলী জানিয়ে দিয়েছে। কিন্তু অনেকেই এখনো হয়তো বুঝতে পারছে না যে কীভাবে গুছিয়ে পড়বে কিংবা কি কি পড়বে? তাদের জন্য থাকছে আজকের আয়োজন। আজ বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জন্য থাকছে বিশদ আলোচনা।

বাংলা (টার্গেট মার্ক ৭/১০)
★বাংলা প্রথম পত্র বইটা আরেকবার রিভিশন দিয়ে দাও, প্রতি সপ্তাহের শুক্রবার একটু একটু করে পড়লেই হয়ে যাবে।এ খান থেকে মিনিমাম ৩-৪ পাবেন।

★বাংলা ২য় পত্র থেকে সমাস, সন্ধি, কারক, শব্দ, প্রকৃতি-প্রত্যয়, পারিভাষিক শব্দ, বাগধারা, সমার্থক শব্দ এই বিষয়গুলো একটু পড়ে নিলেই হবে। সময় না পেলে পূর্ববর্তী বছরের প্রশ্নগুলো পড়তে পারেন।


ইংরেজি(টার্গেট মার্ক ৭/১০)
★ইংরেজি এর জন্য Right form of verb, Preposition, voice change, narration, translation, changing sentence, synonym & antonym, correction এই বিষয়গুলোই যথেষ্ট।
★এগুলো যদি কেউ মোটামুটি পড়ে যেতে পারে, তাহলে খুব সহজেই পরীক্ষায় ৭-৮ পাওয়া সম্ভব।
★একটা বিষয় মনে রাখবেন যে সায়েন্সের ইউনিটে বাংলা-ইংরেজি বিষয়ে খুব একটা কঠিন প্রশ্ন হবে না।

আইসিটি (টার্গেট মার্ক ১৭/২০)
★এবছর ভর্তি পরীক্ষায় আইসিটি বিষয় নতুন সংযুক্ত হয়েছে। এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। একটু টেকনিক্যালি পড়াশুনা করলে ইজিলি ১৬-১৭ মার্ক পাওয়া সম্ভব। এর জন্য আলাদা কোনো বই পড়তে হবে না। টেক্সট বুক ও এইচএসসি টেষ্ট পেপার্স থেকে জ্ঞানমূলক ধরনের এমসিকিউগুলো একটু ভালো করে পড়লেই হবে।
★সংখ্যা পদ্ধতির সবগুলো রূপান্তর খুব ভালো করে শিখতে হবে। এখান থেকে মিনিমাম ২ টি এমসিকিউ কমন পড়বে।
★সংখ্যা পদ্ধতিতে যোগ, বিয়োগ, আগের ও পরের সংখ্যা, পরিপূরক এগুলো বের করা শিখতে হবে।
★লজিক গেটে লজিক সার্কিট থেকে লজিক ফাংশন ও লজিক ফাংশন থেকে লজিক সার্কিট তৈরি, সকল গেটের ইনপুট-আউটপুট কি হবে, সত্যক সারণীতে ইনপুট কত দিলে আউটপুট কত হবে, সরলীকরণ এবং সকল গেটের প্রতীক আকা ভালো করে শিখতে হবে।
★এইচটিএমএল থেকে কোনগুলো এম্পটি ট্যাগ কোনগুলো কন্টেইনার ট্যাগ এবং কোন ট্যাগের কি কাজ এগুলো জানলেই হবে।
★সি প্রোগ্রামিং থেকে সকল প্রজন্মের ল্যাঙ্গুয়েজের ব্যাবহার ও মেইন বৈশিষ্ট্য গুলো জানতে হবে।
★সকল ফাংশন, কিওয়ার্ড, ভেরিয়বল, ডেটা টাইপ, কন্ডিশনাল স্ট্যাটমেন্ট,লুপ সম্পর্কে বুঝতে হবে এছাড়া ছোট ছোট প্রোগ্রাম দেখে আউটপুট বলতে পারতে হবে।ব ড় বড় প্রোগ্রাম স্কিপ করলেও হবে।

ফিজিক্স (টার্গেট মার্ক ১৬/২০)
★বইয়ের সবগুলো একক, মাত্রা এবং সমানুপাতিক ও ব্যাস্তানুপাতিক সম্পর্ক ঠোটের আগায় মুখস্থ রাখার চেষ্টা করতে হবে।
★প্রত্যেকটা অধ্যায়ের মূল সূত্রগুলো মিনিংসহ মুখস্থ রাখতে হবে।
★তপন স্যার ও আমীর হোসেন স্যারের বইয়ের প্রতিটি চ্যাপ্টারের শেষে অনুশীলনের জন্য যে এমসিকিউগুলো আছে সেগুলো ভালো করে সমাধান করতে হবে।
★শাবিপ্রবি ব্যতীত বাকি ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যতগুলো সম্ভব হবে স্পেশালি খুবি, ইবি, জবি ও বিজ্ঞান প্রযুক্তি এর প্রশ্নগুলো সমাধান করার চেষ্টা করতে হবে। শাবিপ্রবির সমাধান করতে পারলে ভালো না পারলে স্কিপ করতে পারেন। এবছর শাবিপ্রবি গুচ্ছতে থাকায় শাবিপ্রবি টাইপ প্রশ্ন হবে না। বাকি ১৯টি ভার্সিটির প্রশ্নের মান বিবেচনায়ই প্রশ্ন করবে।

রসায়ন (টার্গেট মার্ক ১৭/২০)
★যতো বেশিবার সম্ভব হাজারী ও নাগ স্যারের মেইন বইটা রিভিশন দিতে হবে।
★জৈব যৌগ পারলে ভালো না পারলে এতো প্যারা নেওয়ার কিছু নেই। পূর্ববর্তী বছরের প্রশ্নগুলো পড়লেই হবে।
★হাজারী ও নাগ স্যারের বইয়ের অনুশীলনের এমসিকিউগুলো মাস্ট সমাধান করতে হবে। সাথে এইচএসসি বোর্ডে পরীক্ষায় আসা জ্ঞানমূলক প্রশ্নগুলো।
★শাবিপ্রবি ছাড়া বাকি ১৯টি ভার্সিটির সমাধান করতে হবে।

উচ্চতর গণিত (টার্গেট মার্ক ১৬/২০)
★ম্যাট্রিক্স, বিন্যাস সমাবেশ, বৃত্ত, সরলরেখা, কনিক, সম্ভাবনা, ২য় পত্রের ত্রিকোণমিতি, দ্বিপদী বিস্তৃতি, বহুপদী, জটিল সংখ্যা এই অধ্যায়গুলো খুব ভালোভাবে পড়তে হবে। যেনো প্রশ্ন যেভাবেই হোক আপনার টার্গেট যেন মিস না হয়।
★ক্যালকুলাসের অন্তরীকরণ পার্ট টাতে বেশি মনোযোগ দিতে হবে। যোগজীকরণের পূর্ববর্তী বছরের প্রশ্নগুলো বুঝে সমাধান করলে এক থেকে দুইটা কমন হুবহু কমন পাওয়া যাবে। আর স্থিতিবিদ্যা না পারলে স্কিপ করতে পারেন। বাকিগুলো ভালো করে পারলেই যথেষ্ট।
★প্রথমে টাইপ ভিত্তিক কয়েকটা করে ম্যাথ করতে হবে। তারপর শাবিপ্রবি ছাড়া বাকি ১৯টি ইউনিভার্সিটির বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্নগুলো সমাধান করতে হবে। অতিরিক্ত কঠিন প্রশ্নগুলো স্কিপ করতে পারেন।

জীববিজ্ঞান(টার্গেট মার্ক ১৮/২০)
★যারা মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে তারা শুধু বিগত বছরের প্রশ্নগুলো মুখস্থ করে গেলে খুব সহজেই ১৭-১৮ পাওয়া সম্ভব। অনেকে হয়তো ২০/২০ ও পাবে।
★বাকিরা মেইন বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ লাইন (যেগুলো দেখেই বুঝা যায় আসার মতো) সেগুলো মুখস্থ করে ফেলতে হবে, সাল, জটিল উদাহরণ, জটিল বৈশিষ্ট্য এসব স্কিপ করতে পারেন। ইউনিভার্সিটির বায়োলজি প্রশ্ন এতো গভীর থেকে করেনা। মেইন হাইলাইট করা লাইনগুলো থেকে প্রশ্ন করে। সাথে পূর্ববর্তী বছরের প্রশ্নগুলো সমাধান করলেই যথেষ্ট।

লেখক: শিক্ষার্থী সিএসই বিভাগ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ