১ মার্চের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি নুর-রাশেদদের

সচিবালয়
সচিবালয়ের সামনে ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা  © টিডিসি ফটো

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে আগামী ১ মার্চের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচির সমাপ্তি শেষে এই আল্টিমেটাম দেয়া হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে বিষয়টি দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন।

তিনি বলেন, আমরা শিক্ষামন্ত্রীর গতকালকের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছি। সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি যে তারা যেন আগামী ১ মার্চের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেন। ১ মার্চের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুললে আমরা আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা করবো।

রাশেদ আরও বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান পরীক্ষাগুলো শেষ করতে হবে। এছাড়া আগামী মার্চে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের যে অসমাপ্ত পরীক্ষা নেয়ার কথা ছিল সেগুলোও যথা সময়ে নিতে হবে। তা না হলে সারা দেশের ছাত্র সমাজকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনতিবিলম্বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে সংগঠনটি। বিক্ষোভ শেষে মিছিল নিয়ে সচিবালয় ঘেরাও করে তারা।

সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক নুরুল হক নুর বলেন, সরকারি দলের প্রত্যেকটি সমাবেশে হাজার হাজার মানুষের সমাগম হয়। এমন প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও সারাদেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে, সেখানে কি করোনা সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

নুর বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক পরীক্ষা চলছিল, কিন্তু গতকাল শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। দেশের সব কিছু যেখানে সচল রয়েছে, সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন বন্ধ রয়েছে সেটি আমার বোধগম্য নয়। দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন, ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হাসান, সংগঠনটির ঢাবি শাখার সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লাসহ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীরা।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ