প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময় এগিয়ে আনার চিন্তা

করোনা
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা   © ফাইল ছবি

করোনা সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে থাকায় সরকারি সকল নিয়োগ পরীক্ষাই ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। তাই আগামী বছর শুরুর দিকেই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করতে চায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আগামী জুন মাসে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের এমসিকিউ পরীক্ষা আয়োজনের কথা থাকলেও এখন করোনা পরিস্থিতি উন্নত হওয়ায় তা এগিয়ে আনার চিন্তা করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। 

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুর আলম দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, করোনা সংক্রমণ কমে যাওয়ায় প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে এই নিয়োগের আবেদন কার্যক্রম শেষে তা যাচাই-বাছাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে। বর্তমানে প্রশ্নপত্র তৈরি, ওএমআর (উত্তরপত্র) তৈরির কাজ চলমান রয়েছে। আগামী বছর মাঝামাঝিতে পরীক্ষা নেয়ার কথা থাকলেও এখন আমরা বছরের শুরুর দিকে নেয়ার চিন্তা করছি। তবে মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের উপরই সার্বিক বিষয় নির্ভর করে।

এর আগে নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে দুটি বড় পাবলিক পরীক্ষা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের কারণে এ বছর প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছিলেন। চলতি অর্থ বছরের মধ্যে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার চেষ্টা করা হবে বলেও জানান তিনি।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ১৭ মাস পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সচল হওয়ায় প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। আগামী বছরের জানুয়ারিতে নিয়োগ পরীক্ষা শুরুর প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণে এই নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করা সম্ভব হয়নি। তবে নিয়োগ সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কাজ এগিয়ে রাখা হয়েছে। 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ