করোনাকে হারিয়ে হাসপাতাল ছাড়লেন সচিন

সচিন টেন্ডুলকার
করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য গতমাসে নমুনা দেন সচিন টেন্ডুলকার  © ফাইল ফটো

করোনাভাইরাসকে বাউন্ডারির বাইরে ফেলে দিলেন সচিন টেন্ডুলকার। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন মাস্টার ব্লাস্টার। গত ২৭ মার্চ সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞপ্তি জারি করে টেন্ডুলকার অনুরাগীদের জানান যে, তিনি করোনা সংক্রমণের শিকার হয়েছেন।

পরে গত ২ এপ্রিল ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের দশম বর্ষপূর্তির দিন টুইটারেই টেন্ডুলকার জানিয়েছিলেন যে, ডাক্তারদের পরামর্শ মতো তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অবশেষে আজ বৃহস্পতিবার পুনরায় টুইট করেই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার খবর জানিয়ে দেন তিনি।

টুইটে সচিন লেখেন, ‘আমি এইমাত্র হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছি এবং পুরোপুরি সুস্থ হওয়া পর্যন্ত বিশ্রাম ও আইসোলেশনে থাকব। আপনাদের শুভকামনা ও প্রার্থনার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। সত্যিই কৃতজ্ঞ।’

টেন্ডুলকার টুইটে কৃতজ্ঞতা জানান মেডিক্যাল স্টাফদেরও। তিনি লেখেন, ‘আমি সর্বদা কৃতজ্ঞ থাকব সমস্ত মেডিক্যাল স্টাফদের কাছে যাঁরা আমার যথাযথ যত্ন নিয়েছেন এবং এমন কঠিন সময়ে অক্লান্তভাবে সারা বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছেন।’

সচিন ছাড়াও এবছর রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে অংশ নেওয়া আরও তিন প্রাক্তন ভারতীয় তারকা করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান সোশ্যাল মিডিয়ায়। সচিনের সঙ্গে একই দিনে করোনা পজিটিভ চিহ্নিত হওয়ার কথা ঘোষণা করেন ইউসুফ পাঠান। পরের দিনে এস বদ্রিনাথের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। শেষে ইরফান পাঠান টুইট করে জানান, তাঁর রিপোর্টও পজিটিভ। খবর: হিন্দুস্তান টাইমস।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ