বিচার না পেলে আত্মহত্যার ঘোষণা মুক্তিযোদ্ধার

লাঞ্চনা
সংবাদ সম্মেলনে বিষের বোতল হাতে মুক্তিযোদ্ধা দীনেশ চন্দ্র মণ্ডল  © সংগৃহীত

পুলিশ কনস্টেবল দ্বারা লাঞ্চনার শিকার এক মুক্তিযোদ্ধাদ্ধা বিচার না পেলে আত্মহত্যার ঘগেরষণা দিয়েছেন। সাতক্ষীরার আশাশুনিতে পুলিশ কনস্টেবল সোহাগের কটূক্তির শিকার হন দীনেশ চন্দ্র মণ্ডল নামে এক মুক্তিযোদ্ধা।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) এই ঘটনার বিচার দাবিতে প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দীনেশ চন্দ্র মণ্ডল।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, রবিবার সকালে মোটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে আশাশুনিতে যাচ্ছিলেন তিনি। আশাশুনি বাইপাস সগকে এসআই জুয়েল তাকে গাড়ি থামানোর সংকেত দেয়। এসময় সেখানে থাকা কনস্টেবল সোহাগ তাকে কটূক্তি করে। এমনকি মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় শোনার পরও সোহাগ খারাপ মন্তব্য করে। এসপিকে বলে দেয়ার কথা বললে সোহাগ তার প্যান্টের চেইন খুলে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে দেখিয়ে বাজে মন্তব্য করে।

তিনি বক্তব্যের এক পর্যায়ে কেঁদে ফেলেন এবং মনোকষ্টে সঙ্গে আনার একটা বিষের বোতল দেখিয়ে বলেন, ‘মহাত্মন, এহেন অপমান জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের জন্যে অতীব দুঃখজনক ও আত্মহত্যার শামিল।’ এই ঘটনার বিচার না পেলে আত্মহত্যা করবেন বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী গাজী, আব্দুর করিম, কাত্তিক চন্দ্র মন্ডল, মাষ্টার আকবর আলীসহ বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা।


মন্তব্য