আগামীতে সব বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে টেক ফেস্ট আয়োজন করবে রাবিপ্রবি

তানজিম মাহমুদ
তানজিম মাহমুদ  © টিডিসি ফটো

রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজন করতে যাচ্ছে টেকনোলজিকাল ফেস্টিভল (টেকফেস্ট)। টেকফেস্টের আয়োজনকে ঘিরে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে। আগামী মে মাসের শেষের দিকে এ আয়োজন শুরু হতে পারে। আয়োজনের বিস্তারিত নিয়ে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের সঙ্গে কথা বলেছেন টেকফেস্টের আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তানজিম মাহমুদ। তার কথাগুলো শুনেছে আহ্সান হাবীব

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ শুভ অপরাহ্ন স্যার।
তানজিম মাহমুদঃ শুভ অপরাহ্ন।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ ক্যাম্পাসে টেকফেস্ট আয়োজনের আইডিয়া কিভাবে? কোন অনুপ্রেরণা ছিল কিনা
তানজিম মাহমুদঃ আসলে এই আইডিয়াটা আমার না। বাংলাদেশ সরকারের চমকপ্রদ কার্যক্রম বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি-২০২১-২০২২ এর অন্তঃর্ভুক্ত কর্মসম্পাদন সূচকের মধ্যে  টেকনোলজিকাল ফেস্টিভল অন্যতম। সেখান থেকেই ক্যাম্পাসে এ ধরনের আয়োজন নিয়ে কাজ শুরু করি।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ গতবছর ডিভিশনাল প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা আয়োজনে রাবিপ্রবি যথেষ্ট সুনাম কুড়িয়েছে। এবার সে আয়োজন সামনে না রেখে টেক ফেস্ট কেন?
তানজিম মাহমুদঃ ৪র্থ শিল্প বিপ্লব চ্যালেঞ্জ ও জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার করণীয় বিষয়গুলোকে প্রাধান্য দিয়ে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এই বছর টেকনোলজিকাল ফেস্টিভল আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে। এছাড়া প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতাকেও বাদ দেয়া হয়নি। প্রোগ্রামিং-এর সঙ্গে আরও ছয় ইভেন্টের সমন্বয়ে রাবিপ্রবির টেক ফেস্টিভল অনুষ্ঠিত হবে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ এই প্রোগ্রামে শুধুই রাবিপ্রবি কেন?
তানজিম মাহমুদঃ টেকনোজিকাল ফেস্টিভল আয়োজন বিরাট মহাযজ্ঞ। তাছাড়া করোনা মহামারি কারণে নতুন এ স্বাভাবিক পরিস্থিতি আগের থেকে একটু ভিন্ন। সেদিক বিবেচনায় আপাতত আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে এটি সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। আশা করি সামনের দিনগুলোতে রাবিপ্রবি সব বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে টেকফেস্টিভল আয়োজন করবে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ টেকফেস্টের এবারের আয়োজন থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য কি ধরনের শিক্ষণীয় বিষয় রাখা হয়েছে? শিক্ষার্থীরা কতটুকু উপকৃত হবে
তানজিম মাহমুদঃ হ্যাঁ, শিক্ষার্থীরা অবশ্যই উপকৃত হবে। সবগুলো ইভেন্ট শিক্ষার্থীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আশা করি এই ফেস্টিভল থেকে শিক্ষা নিয়ে তারা ৪র্থ শিল্প-বিপ্লব ও জলবায়ু পরিবর্তন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তথা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মানে অবদান রাখবে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ এই আয়োজন কি শুধুই সিএসই বিভাগের জন্য? নাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীরাও অংশগ্রহণ করতে পারবে
তানজিম মাহমুদঃ না, এটি রাবিপ্রবি তথা পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোগ্রাম। পৃথিবীর সকল বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজেদের সক্ষমতা ও গুণগত শিক্ষাব্যবস্থা জানান দিচ্ছে। ঠিক সমভাবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ঠ উদ্যোগে বিশ্বের সাথে সমানভাবে তাল মিলিয়ে চলার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। আমি মনে করি এই ফেস্টিভলটি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক হবে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ শিক্ষার্থীদের উপরে নতুন এই ইভেন্টের আয়োজন কি ধরনের প্রভাব ফেলবে বলে মনে করেন
তানজিম মাহমুদঃ  শিক্ষার্থীদের ট্রেডিশনাল শিক্ষাব্যবস্থার বাইরে তাদের নিজেদের মেধার বিকাশে অন্যতম মাধ্যম হবে এই ফেস্টিভল। আশা করি শিক্ষার্থীর মধ্যে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ টেকফেস্ট আয়োজনে গেমিং কন্টেস্ট, কিভাবে দেখছেন?
তানজিম মাহমুদঃ মূল আয়োজক কমিটি গেমিং প্রতিযোগিতার ইভেন্টের জন্য একটা উপ- কমিটি গঠন করেছে। ওই কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে কিভাবে আয়োজন করবে এই ইভেন্টটি।

দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসঃ অসংখ্য ধন্যবাদ স্যার।
তানজিম মাহমুদঃ দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকেও ধন্যবাদ।


x

সর্বশেষ সংবাদ