অবৈধভাবে গরুর হাট বসানো হয়েছে ভিকারুননিসায়

ভিকারুননিসা
অবৈধভাবে গরুর হাট বসানো হয়েছে ভিকারুননিসায়  © সংগৃহীত

ঈদুল আযহা উপলক্ষে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের ১১ নং গেইটে অবৈধভাবে গরুর হাট বসানো হয়েছে বলে দাবি করেছে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের কর্তৃপক্ষ। শনিবার কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার স্বাক্ষরিত এক নোটিশের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

নোটিশে বলা হয়, মেসার্স ফখরুদ্দিন সন্স এন্ড ডেকোরেটর এর সাথে ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের ভাড়ার চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় গভর্নিং বডির সভার সিদ্ধান্তে গত ৩০ মার্চের মধ্যে তাদেরকে ভাড়াকৃত সেড ও স্থানের দখল বুঝিয়ে দেওয়ার চূড়ান্ত নোটিশ প্রদান করা হয়। উক্ত নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁরা এ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ৮৪/২০২১ নং দেওয়ানী মোকদ্দমা দায়ের করে। উক্ত মোকদ্দমা বর্তমানে বিচারাধীন। মেসার্স ফখরুদ্দিন সন্স এন্ড ডেকোরেটর বর্তমানে অবৈধভাবে উক্ত স্থান দখল করে গরুর হাট বসিয়েছে। করোনা মহামারীর কারণে বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় এবং উক্ত ১১নং গেইট এ প্রতিষ্ঠানের লোকজনের আনাগোনা কম থাকায় তাঁদের গরুর হাট বসানোর বিষয়টি তাৎক্ষনিকভাবে কর্তৃপক্ষের নজরে আসেনি।

পরবর্তীতে গরুর হাট বসানোর বিষয়টি নজরে আসার সাথে সাথে মেসার্স ফখরুদ্দিন সন্স এন্ড ডেকোরেটর এর বর্তমান সত্ত্বাধিকারীদেরকে ডেকে এনে অবৈধভাবে গরুর হাট বসানোর বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে গরুর হাটটি সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ প্রদান করা হয়। মেসার্স ফখরুদ্দিন সন্স এন্ড ডেকোরেটর এর এ অবৈধ কার্যকলাপের জন্য তাঁদের বিরুদ্ধে রমনা থানায় একটি সাধারণ ডাইরিও করা হয়। (জিডি নং-৭২০ তারিখ: ১৭/০৭/২০২১)

ভিকারুননিসা স্কুল এন্ড কলেজ একটি ঐতিহ্যবাহী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গনে কোরবানীর গরুর হাট বসানো অবৈধ ও অপরাধমূলক কাজ বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ