কৃষি গুচ্ছে আবেদনের যোগ্যতা বাড়ল

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
ভর্তি পরীক্ষা  © ফাইল ফটো

গুচ্ছভুক্ত দেশের সরকারি সাতটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদনের যোগ্যতা বাড়ানো হয়েছে। ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের তুলনায় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে আবেদনের জিপিএ-১.০০ বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (২ মার্চ) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরকৃবি) সিন্ডিকেট সভা মিলনায়তনে কৃষি গুচ্ছে ভর্তি পরীক্ষা কমিটির দ্বিতীয় সভায় আবেদনের যোগ্যতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বশেমুরকৃবি জনসংযোগ বিভাগের উপ-রেজিস্ট্রার মজনু মিয়া। তিনি বলেন, এবার কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদনের যোগ্যতা কিছুটা বাড়ানো হয়েছে। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি ও এইচএসসি পাসকৃত শিক্ষার্থীদের ন্যূনতম মোট জিপিএ-৮.০০ থাকতে হবে। এটি চতুর্থ বিষয় ছাড়াই পেতে হবে। যদিও ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা ৭.০০ ছিল।

তিনি আরও বলেন, একজন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে জিপিএ ৩.৫ পেতে হবে। আগামী ৩১ জুলাই বেলা ১১ থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াস উদ্দীন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. লুৎফুল হাসান, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. মতিয়ার রহমান হাওলাদার, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. শহীদুর রহমান খান এবং পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর তোফায়েল আহমেদ, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান ও বশেমুরকৃবির রেজিস্ট্রার মো. সিরাজুল ইসলাম তালুকদার উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য