সুরমা নদীতে আটকে পড়া ঢাবি শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী

সুরমা নদীতে আটকে পড়া ঢাবি শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী
আটকে পড়া ঢাবি শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী  © সংগৃহীত

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার এলাকায় নৌযানে আটকা পড়া বিভিন্ন পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শ খানেক শিক্ষার্থীর সবাইকে উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে ২১ জন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রয়েছেন। 

রবিবার (১৯ জুন) সকালে এ তথ্য জানিয়েছেন আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর)।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহমেদ বলেন, গতকাল রাতে শিক্ষার্থীরা যখন আটকে গিয়েছিল আমি জানার সাথে সাথে সেনাবাহিনীর আইএসপিআর জাহিদ মালেকের, সুনামগঞ্জ ক্যান্টনমেন্টের রেসকিউ কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সওকত, ওই জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিজানুর রহমানের সাথে কথা বলে তাদেরকে উদ্ধারের জন্য অনুরোধ করি।তারা আজকে সকালে সেখানে সেনাবাহিনীর একটি টিম পাঠান। কিছুক্ষণ আগে তাদেরকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জের ছাতকে নিয়ে আসে। বর্তমানে তাদেরকে সিলেট ক্যান্টনমেন্ট নিয়ে আসা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বৃষ্টি থাকবে আরও ২ দিন, বন্যা পরিস্থিতি অবনতির শঙ্কা

গত ১৪ জুন টাঙ্গুয়া হাওর ভ্রমণের জন্য সুনামগঞ্জে যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ১৯ জনসহ মোট ২১ শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে সাত জন নারী শিক্ষার্থী রয়েছেন। বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় তার সেখানে আটকা পড়েছিলেন।

এর আগে গত শুক্রবার (১৭ জুন) তাদের উদ্ধারের খবর পাওয়া যায়। তবে সেদিন উদ্ধারের পর সিলেটে আসার পথে আবার লঞ্চের ইঞ্জিন আবার বিকল হয়ে যায়। পরে তারা ছাতকে আটকা পড়েন। সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে সেনাবাহিনী।

আজ ক্ষুদে বার্তায় আইএসপিআর জানানো হয়, ২১ শিক্ষার্থীসহ আটকে পড়া আরও বেশ কয়েকজনকে সুনামগঞ্জের ছাতক থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের সিলেটে আনা হচ্ছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ