চুপিসারে ক্যাম্পাস ছাড়লেন জাবির সাবেক ভিসি ফারজানা

জাবি
জাবি ভিসির বাসবভবন ও সাবেক ভিসি ফারজানা  © টিডিসি ফটো

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম আজ সোমবার (২৫ এপ্রিল) অনেকটা নীরবেই উপাচার্যের বাসভবন ছেড়েছেন। দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এস্টেট অফিসের প্রধান ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার আব্দুর রহমান।

তিনি বলেন, যতটুকু শুনেছি ম্যাডাম ৭-৮ দিন থেকে অসুস্থ। উনি যে কবে বাসা ছাড়ছেন তা তো জানি না। তবে আজ বিকেলে ওনার ছেলে আর ছেলের বউ বাড়ি বুঝিয়ে দিয়ে গেছেন।

নতুন উপাচার্যের বাসভবনে ওঠার ব্যাপারে তিনি বলেন, বাসা তো কেবল বুঝিয়ে নিলাম। চুনকাম করতে হবে, অনেক কিছু রিপেয়ার করতে হবে। এরপর হয়তো উঠবেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে উপাচার্যের বাসায় দায়িত্ব পালন করছেন এমন একজন কর্মচারী দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ম্যাডাম (অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম) তো গত দুই সপ্তাহ ধরে বাসায় ছিলেন না। যতটুকু শুনেছি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। গত পরশুদিন দুইটি বড় পিক আপে এবং গতকাল দুইটি কাভার্ডভ্যানে করে বাসার সমস্ত মালামাল নিয়ে গেছেন। আজকে রেজিস্ট্রার ম্যাডাম ও বাবুল স্যারের (এস্টেট প্রধান আব্দুর রহমান) উপস্থিতিতে ওনার ছেলে ও ছেলের বউ বাসার চাবি বুঝিয়ে দিয়েছেন।

আরেকজন কর্মচারী বলেন, মামা আজকে আল্লাহ আমারে জাহান্নাম থাইকা বাঁচাইলো। ম্যাডামের ছেলেরে স্যার ডাকতে হইছে। করোনার সময় কোনো ছুটি পাই নাই। এমনকি বড় স্যারেররা ছুটি দিলেও ম্যাডামের ছেলে ফোন দিয়ে ছুটি বাতিল করেছে। আত্মীয়-স্বজন মারা গেলেও যাওয়া নিষেধ ছিলো। বাহিরে পুলিশদেরকে পানি পর্যন্ত দিতে পারি নাই। ভিতরের ওয়াশরুম ব্যবহার নিষেধ ছিলো।

চলতি বছরের ১ মার্চে উপাচার্যের দ্বিতীয় মেয়াদ পূর্ণ করেন অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। কিন্তু ২ মার্চ প্রবাহ্ন পর্যন্ত উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ওইদিন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের একাংশ ঝাড়ু ও কাঠাল নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে তার বাসভবনের সামনে গেলে উপাচার্যপন্থী শিক্ষকদের একটি অংশ বিক্ষোভকারীদের সড়ে যেতে অনুরোধ করেন।

এরপর ওইদিন বিকেলে শিক্ষকরা উপাচার্যের বাসভবনে সাক্ষাৎ করতে গেলে ৪-৫ দিনের মধ্যে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যের দায়িত্ব নিয়ে আসতেছেন বলে জানান তিনি। কিন্তু গত ১৭ এপ্রিল উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নূরুল আলমকে উপাচার্যের সাময়িক দায়িত্ব দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি হলে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান হয়।


x