পরিচ্ছন্নতা অভিযানে জাবিসাসের সদস্যরা

সেন্টমার্টিনে জাবিসাসের পরিচ্ছন্নতা অভিযান
সেন্টমার্টিনে জাবিসাসের পরিচ্ছন্নতা অভিযান  © টিডিসি ফটো

বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনে পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (জাবিসাস) সদস্যরা। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে সেন্টমার্টিনের পশ্চিম বীচ পরিষ্কার করেন তারা।

জাবিসাস সভাপতি মাহবুব আলম ও সাধারণ সম্পাদক আবির আব্দুল্লাহর নেতৃত্ব ১৪ জন সদস্য পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন।

সাংবাদিক সমিতির সদস্যরা জানান, বিশ্বের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন। ভ্রমণপ্রেমীরাদেশের জন্য কাঙ্ক্ষিত স্থান এটি, এখানে প্রতিনিয়ত পর্যটক সমাগম বাড়ছে। কিন্তু মানুষের ফেলে দেওয়া বর্জ্যে দূষিত হচ্ছে দ্বীপের পরিবেশ।

তারা বলেন, প্রাকৃতিক সম্পদে পূর্ণ এ দ্বীপটি রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের সকলের। কারণ ইতিমধ্যে আমরা দেখেছি কক্সবাজারের পানির অবস্থা খুবই খারাপ। সেই তুলনায় সেন্টমার্টিনের পানি এখনও ভাল আছে। আমরা যদি এখনি সচেতন না হই তবে আমরা এই দ্বীপটির সৌন্দর্য হারিয়ে ফেলবো।

জাবিসাস সভাপতি মাহবুব আলম বলেন, সাগরের নীল জলের ও আকাশের অপরুপ হাতছানি রয়েছে সেন্ট মার্টিনে। অপরুপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যমন্ডিত এ দ্বীপটি বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন স্থান হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে। কিন্তু পর্যটকদের ব্যবহৃত প্লাস্টিক বর্জ্য ও অপচনশীল আবর্জনা যত্রতত্র ফেলানোর ফলে দ্বীপটির প্রাকৃতিক ভারসাম্য দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে।

জাবিসাস সাধারণ সম্পাদক আবির আব্দুল্লাহ বলেন, আগামী বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তন সবচেয়ে বড় হুমকির কারণ। আমরা আমাদের পরিবেশ রক্ষায় যদি এখনি সচেতন না হই তবে নিজেদের মৃত্যু নিজেরা ডেকে আনবো। যত্রতত্র বর্জ্য ফেলার ফলে আমরা আমাদের অজান্তেই পরিবেশের বড় ধরনের ক্ষতি করে ফেলছি। আমাদের সচেতন হওয়া উচিত তাতে রক্ষা পাবে পরিবেশ রক্ষা পাবো আমরা।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ