আলটিমেটাম দিয়ে শাহবাগ অবরোধ প্রত্যাহার শিক্ষার্থীদের

আলটিমেটাম দিয়ে শাহবাগের সড়ক ছাড়লেন শিক্ষার্থীরা
আলটিমেটাম দিয়ে শাহবাগের সড়ক ছাড়লেন শিক্ষার্থীরা   © সংগহীত

২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়ে রাজধানীর শাহবাগ মোড় থেকে অবরোধ তুলে নিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। দেশের বিভিন্ন স্থানে মন্দির এবং মণ্ডপে হামলা ও অগ্নিকাণ্ডের প্রতিবাদে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবাদী শিক্ষার্থীরা শাহবাগ মোড়ে রাস্তায় অবস্থান নেন। পরে দুপুর ২টার দিকে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়ে শাহবাগ মোড় থেকে অবরোধ তুলে নেন তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় প্রথমে সমবেত হন জগন্নাথ হলসহ বিভিন্ন আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা। সেখান থেকে তারা মিছিল নিয়ে শাহবাগ মোড়ে আসেন। অবরোধের কারণে শাহবাগসহ পল্টন, জিরোপয়েন্টের আসেপাশের এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

এই কর্মসূচি থেকে শিক্ষার্থীরা সরকারের কাছে সাত দফা দাবি জানান। এগুলো হলো: হামলার শিকার মন্দিরগুলোর শিগগিরই প্রয়োজনীয় সংস্কার করা, বসতবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে লুটপাটের ক্ষতিপূরণ দেওয়া, ধর্ষণ ও হত্যার শিকার পরিবারগুলোকে স্থায়ী ক্ষতিপূরণ দেওয়া ও দোষী ব্যক্তিদের শাস্তি নিশ্চিত করা।

জাতীয় সংসদে আইন প্রণয়নের মাধ্যমে মন্দির ও সংখ্যালঘুদের বাসাবাড়িতে সাম্প্রদায়িক হামলার দায়ে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা, সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় ও কমিশন গঠন, হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টকে আধুনিকায়ন করে ফাউন্ডেশনে উন্নীত করা এবং জাতীয় বাজেটে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য জিডিপির ১৫ শতাংশ বরাদ্দ করা।

জগন্নাথ হলের ছাত্র ও হল শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জয়জিৎ দত্ত বলেন, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আমাদের সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে দাবিগুলোর বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেবেন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দাবি না মানা হলে এবং এর মধ্যে দেশের কোথাও এ ধরনের হামলা-ভাঙচুর বা সহিংসতার ঘটনা ঘটলে আমরা তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নেব।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ