কবে খুলবে জাবির হল?—যা বললেন ভিসি

জাবি
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ছবি

১৫ দিনের মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) হল খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানা যাবে বলে জানিয়েছেন জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড.ফারজানা ইসলাম। তিনি বলেন, আমরা হল খুলে দেয়ার পর যাতে আবার বন্ধ করতে না হয় সেজন্য শিক্ষার্থীদের ১৫ দিন ধৈর্য ধরার অনুরোধ করছি।

অধ্যাপক ড.ফারজানা ইসলাম আরো বলেছেন, যথাযথ প্রক্রিয়া অবলম্বন করেই শিক্ষার্থীদের হলে উঠানো হবে। আগামী ২৯ তারিখ বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল ও ২ তারিখের সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়া হবে।

উপাচার্য বলেন, আমরা যেভাবে ডিজাস্টার অর্ডিন্যান্স পাস করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রথম অনলাইনে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিয়েছি সেভাবে সুষ্ঠু প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেই ক্যাম্পাস ও হল খুলে দেব, যাতে কোনোভাবেই আমাদের পুনরায় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করতে না হয়।

গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে উপাচার্য আরও জানান, টিকা প্রদান প্রক্রিয়া শুরু হলে তো সাত-আট দিন লাগবে। টিকা ছাড়াই যদি হলে উঠানো যেতো তাহলে কেন এতদিন বন্ধ রাখলাম? অন্তত এক ডোজ টিকা নিতেই হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন সম্পর্কে উপাচার্য বলেন, শিক্ষার্থীরা চাইলে আন্দোলন করতে পারে, এটা তাদের বিশ্ববিদ্যালয়। তবে আমি তাদের অনুরোধ করব যেহেতু তারা এতদিন ধৈর্য ধরেছে, আর ১৫ দিন অপেক্ষা করে। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই ক্যাম্পাস খুলে দিতে চাই। নিজের ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভালোর জন্য ধৈর্য ধারণ করলে সবার জন্যই মঙ্গল হবে।

উপাচার্য জানান, আমাদের শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে নেই। অনলাইন ক্লাস ও পরীক্ষার মাধ্যমে আমরা শিক্ষাকার্যক্রম চালিয়ে নিয়েছি। সব ব্যাচের শিক্ষার্থীরা অনলাইনে স্বতঃস্ফূর্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে।

ক্যাম্পাস খোলার পরের পদক্ষেপ সম্পর্কে ফারজানা ইসলাম বলেন, খোলার পর শিক্ষার্থীরা ১৫ দিন হলে অবস্থান করবে। হলে থেকেই অনলাইনে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে ক্লাসে বসাতে হবে। অন্যদিকে ক্লাসগুলোর আকার শিক্ষার্থী সংখ্যার তুলনায় সংকীর্ণ। সেক্ষেত্রে আমাদের শিফটভিত্তিক ভাগ করে অথবা একদিন পর পর ক্লাস নেয়া লাগতে পারে।

উল্লেখ্য, ১ অক্টোবরের আগেই হল খুলে দেয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মশাল মিছিল করার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ