ক্যাম্পাসের ভাবমূর্তি ফেরাতে রাবি শিক্ষকদের ৫ দফা দাবি

রাবি
সাবাশ বাংলাদেশ (রাবি)  © টিডিসি ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারে ৫ দফা দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।মঙ্গলবার (৩ জুলাই) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়টির রুটিন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলামের কাছে দাবিগুলো জানান তারা।

তাদের দেয়া স্মারকলিপিতে উল্লেখিত ৫ দফা দাবিগুলো হলো, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনা ভ্যাকসিন প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ নিশ্চিত করা, বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার বরাদ্দ বৃদ্ধি, শিক্ষামন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ একই সাথে কর্মকর্তা ও কর্মচারী নিয়োগ নীতিমালা তৈরিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

এছাড়াও স্মারকলিপিতে আরো উল্লেখ্য করা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহানের বিভিন্ন অনিয়মের কারণে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমুর্তি দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকারকেও দারুণভাবে বিব্রত করেছে। কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে দীর্ঘদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ক্ষতি হয়েছে।

এমতাবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারে ৫ দফা দাবি জানিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাবি উপাচার্য (রুটিন দায়িত্বে) অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কল্যাণার্থেই শিক্ষকরা দাবিগুলো জানিয়েছেন। এরই মধ্যে শিক্ষক- শিক্ষার্থীসহ কর্মকর্তা কর্মচারীদের ভ্যাকসিনেটেড করার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বাকি দাবিগুলোর ব্যাপারেও প্রশাসন দ্রুতই উদ্যোগ নিবে বলে জানান তিনি।

এছাড়া রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালিত হওয়ার জন্য শিক্ষক-কর্মকর্তাসহ সকলের আন্তরিক সহযোগিতা ও দিকনির্দেশনা কামনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ও গৌরব ফিরিয়ে আনার প্রত্যায় ব্যক্ত করেন উপাচার্য।

উল্লেখ্য, স্বারকলিপিতে স্বাক্ষর করেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের স্টিয়ারিং কমিটির ১৬ জন সদস্য। স্বাক্ষর করেছেন অধ্যাপক ড. তারিকুল হাসান, ড. জাহাঙ্গীর আলম সাউদ, সৈয়দ আলী রেজা অপু, আ ন ম ওয়াহিদ, শহিদুল আলম, ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে, তানজিমা জোহরা হাবিব, ড. জাহানুর রহমান, ড. এক্রাম উল্লাহ, মিজানুর রহমান, শাহরিয়ার জামান, ওমর ফারুক সরকার, আব্দুল্লাহ আল মামুন, নাসিমা আখতার, আসাবুল হক, ড. আবু জাফর তৌহিদুল ইসলাম প্রমুখ।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ