আগামী দুমাসে কিভাবে নেব ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি প্রস্তুতি?

জাবি
ভর্তি পরীক্ষা   © টিডিসি ফটো

ইঞ্জিনিয়ারিং গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা ০৬ আগস্ট, আর বুটেক্স ভর্তি পরীক্ষা ১২ আগস্ট৷ সেই হিসেবে এখনো প্রায় ৫৫ দিন এর মত আছে৷ কিন্তু ভার্সিটির ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়ে যাওয়ার কারণে আমাদের সময় আছে মাত্র ৪৫ দিন৷ এর মধ্যে আবার ঈদুল আযহা আছে। চেষ্টা করবে এবার ঈদুল আযহার দিনটা বাদে বাকি দিনগুলি পড়াশোনার পিছনেই ব্যয় করতে৷

চলো কিভাবে সবচেয়ে সুন্দরভাবে এসময়টাকে ব্যবহার করা যায়, সেটা দেখি ৷ ছবির চার্টটি প্রিন্ট করে রাখ, পড়ার সময়টি চার্টটি দাগাবা, এতে তোমার পড়ার সময় বণ্টন ও পড়ার সাথে লেগে থাকার প্রতি আগ্রহ বাড়বে ৷

প্রথম ৫/৭ দিন আমরা রাখছি, যে অধ্যায়গুলিতে আমাদের সমস্যা আছে, শেষ হয়নি, অথবা কঠিন লাগে... সেগুলির জন্য৷ এ সময়ে আমরা সেই অধ্যায়গুলি একবার ঝালাই করে নিব৷

তারপর আমরা ত্রিশ দিন পদার্থবিজ্ঞান, উচ্চতর গণিত, রসায়ন এর প্রতিটি অধ্যায়ে একদিন করে সময় দিব৷ কোন কোন অধ্যায়ে দুদিন লাগতে পারে, কোন কোন অধ্যায় অল্প সময়েই শেষ হবে ৷ সেভাবে হিসেব মিলিয়ে নিবে৷ এর সাথে আমরা প্রতিদিন সর্বোচ্চ এক ঘণ্টা সময় দিব ইংরেজির জন্য৷

বলো তো, কিভাবে সবচেয়ে সুন্দরভাবে একটি অধ্যায় কমপ্লিট করা যাবে?

সময়টা এভাবে ভাগ করো, প্রথমে আধা ঘণ্টা বই থেকে কনসেপ্টগুলি একবার দেখে নাও, সূত্রগুলি দেখে নাও৷ তারপর সেই অধ্যায়ের উপর ২ ঘণ্টার মত সময় ব্যয় করো বেসিক টাইপের ম্যাথগুলি করার জন্য৷ এতে তোমার পরবর্তীতে কঠিন ম্যাথগুলি সলভ করার সময় সূত্র এবং কিভাবে করতে হবে সেই পদ্ধতি বুঝতে সহজ হবে৷ এবার তুমি অন্তত ৫-৭ ঘণ্টা নিয়ে সেই অধ্যায়ের উপর বিগত বছরগুলিতে যত প্রশ্ন এসেছে সবগুলি সলভ করার চেষ্টা করো মানে প্রশ্নব্যাংক সলভ করো৷ বিশ্বাস করো, প্রশ্নব্যাংক সলভ করার কোন বিকল্প নেই৷ এখন শুধু বসে বসে প্রশ্নব্যাংক সলভ করো। এটাই পরীক্ষার হলে সবচেয়ে বেশি কাজে আসবে ৷

যদি কোন প্রশ্নে আটকে যাও তবে কি করবে?

সলভ না দেখে শিক্ষক/সিনিয়র ভাই/বন্ধু থেকে হেল্প নিবে বুঝার জন্য৷ এতে বেশিদিন মনে থাকবে সমাধানটি৷ আর সাথে দাগ দিয়ে রাখ যে ম্যাথে তুমি আটকে গিয়েছিলে, এই ম্যাথটি তোমাকে আবার দেখতে হবে, নতুবা মনে রাখতে পারবে না৷

এভাবে ত্রিশ দিনে তোমরা শর্ট সিলেবাসের সবগুলি অধ্যায় খুব ভালোভাবে সলভ করে ফেলবে৷ কোন প্রবলেম হলে 55 Days Engineeering Preparation Challenge এ জিজ্ঞেস করবা৷ সিনিয়র ভাইয়ারা হেল্প করবেন যথাসাধ্য ইনশাআল্লাহ৷

এই সময়টাতে ইঞ্জিনিয়ারিং গুচ্ছ ও ভার্সিটি 'ক' এর জন্য ইংলিশ কি কি পড়ব?

ইংলিশের মূলত দুইটা পার্ট৷ একটা Grammatical, আরেকটা হচ্ছে ভোকাবুলারি৷

Grammatical Part এ রয়েছে Parts of Speech, Preposition, Tense & Right form of Verbs, Voice change, Narration, Degree, Transformation, Conditional প্রভৃতি।  এগুলি থেকেই ঘুরে ফিরে সব প্রশ্ন আসে৷

Vocabulary Part-এ রয়েছে Synonym- antonym, Analogies এবং Phrases & Idioms।

অনেকসময় Seen Comprehension থেকে choose the right word, what is correct এ ধরনের প্রশ্ন আসে৷ এছাড়া সবচেয়ে বেশি কমন একটা জায়গা হলো Appropriate Preposition.

মূলত Grammer পার্ট থেকেই অধিকাংশ প্রশ্ন আসে এবং এইগুলি পারা তুলনামূলক সহজ৷ তাই তোমাদের উচিত হবে বেশি সময় Grammatical পার্ট এ-ই ব্যয় করা৷ তাছাড়া ভোকাবুলারি পার্টটা এমন যে এখান থেকে তুমি হুট করে কিছু পারবে না ৷ ভোকাবুলারি স্ট্রং করার জন্য অনেক সময় প্রয়োজন আর এখন সেই সময়টা একদমই নেই৷

যাই হউক, প্রতিদিন এক ঘণ্টা করে সময় দিয়ে ইংলিশ এর গ্রামাটিক্যাল পার্টটা ভালোভাবে কমপ্লিট করবে৷ আর ভোকাবুলারি এবং Appropriate preposition এখন শুধু প্রশ্নব্যাংক/ Apex/English for competitive exam বইটি থেকে বিগত বছরে আসা ভার্সিটি, মেডিকেল, বিসিএসের প্রশ্ন দেখবে৷

এরপর আমাদের হাতে আছে আরও প্রায় ১৮-২০ দিন ৷ এখন আমরা শুরু করব মডেল টেস্ট দেয়া৷ ইঞ্জিনিয়ারিং স্ট্যান্ডার্ড মডেল টেস্ট দেয়ার পাশাপাশি আমরা যে সকল ভার্সিটির যে সকল ইউনিটে পরীক্ষা দিব (JU, RU, CU, গুচ্ছ) সেগুলির মডেল টেস্টও দিবো, কেননা প্রতিটি ভার্সিটির প্রশ্ন প্যাটার্নে কিছুটা পার্থক্য থাকে৷ পরীক্ষার হলে দ্রুত সঠিকভাবে ম্যাথ সলভ করতে পারার এবিলিটি তৈরি হয় মডেল টেস্ট থেকে৷ প্রতিদিন অন্তত একটি মডেল টেস্ট দিতে থাকবে ভর্তি পরীক্ষার আগ পর্যন্ত৷ আর অবশ্যই এখনো প্রশ্নব্যাংক সলভ করা, যে ম্যাথগুলি পারিনি, সেগুলি বারবার করতে থাকা-জারি রাখব৷ পরীক্ষার হলে যাওয়ার আগ পর্যন্ত এভাবে চলবে৷

লেখক: ফারহান সাদেক
শিক্ষার্থী, চুয়েট 

 


x