গর্ভাবস্থায় আনারস খেলে কি সত্যিই গর্ভপাত হতে পারে?

টিডিসি রিপোর্ট

প্রতীকী ছবি

আমাদের দেশে প্রেগন্যান্সি (গর্ভাবস্থা) নিয়ে সব থেকে প্রচলিত একটি ধারণা হলো গর্ভবতী নারী আনারস খেতে পারবেন না কারণ এতে এবোরশন বা গর্ভপাতের ঝুঁকি বেড়ে যায়। 

কিন্তু যুক্তরাজ্য ভিত্তিক মা ও শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউকে বেবি সেন্টারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গর্ভাবস্থায় আনারস খাওয়া সম্পূর্ণ নিরাপদ। এতে করে এবোরশনের কোনো প্রমাণ বিজ্ঞানীদের হাতে এই মুহুর্তে নেই।

 আসলে এই প্রচলিত ভুল ধারণার মূলে রয়েছে আনারসে উপস্থিত ব্রোমিলিন নামের এক ধরনের উপাদান। পূর্বে ব্রোমিলিন এবোরশনের জন্য ব্যবহার করা হতো কিন্তু একটি আনারসে এর পরিমাণ অনেক অনেক কম। ১০টি আনারস কেউ একবারে খেলেও যে পরিমাণ ব্রোমিলিন গ্রহণ করবেন, তাতে এবোরশনের ঝুঁকি মাত্র ৩০ শতাংশ। তাই ৩/৪ টুকরো বা তার বেশি আনারস যে কোনো গর্ভবতী খেতেই পারেন।

মজার বিষয় হলো কমলা, আমড়া এবং টক জাতীয় ফলে ব্রোমিলিনের উপস্থিতি আনারসের চেয়ে বেশি।  

তবে আপনার শরীর এবং আপনার বাচ্চার স্বাস্থ্য সব থেকে ভালো বোঝেন ডাক্তার। তাই ডাক্তারের কাছে জেনে নিন, ঠিক কতটা পরিমাণ আনারস খেলে আপনার বা বাচ্চার কোনও ক্ষতি হবে না। 

গর্ভাবস্থায় আপেল, কমলা, আম, আনারস ও তরমুজ স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি। এমনিভাবে পাকা পেঁপে খেতেও কোনো সমস্যা নাই তবে কাঁচা পেঁপে ও আধাপাকা পেঁপে ল্যাটেক্স প্রোডাক্ট থাকায় গর্ভপাতের ঝুঁকি থাকে।