ঢাবি ভর্তি পরীক্ষা

শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি হবে গোছানো ও পরিকল্পিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
সর্বোচ্চ পরিশ্রম দ্বারা গোছানো এবং সমন্বিত প্রস্তুতির মাধ্যমে নিজেকে ভর্তি পরীক্ষার জন্য যোগ্য করে তুলতে হয়  © টিডিসি ফটো

এইচএসসি পরীক্ষার পর একজন শিক্ষার্থীর জীবনে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি সামনে আসে সেটা হল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার জন্য নিজেকে ভালোভাবে প্রস্তুত করা। এই সময়কে রীতিমত ‘এক জীবন যুদ্ধ’ বলা যায়। কেননা, এখান থেকে একজন শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ জীবন নির্ধারিত হয়, কিংবা ক্যারিয়ার গড়ার পথ উন্মুক্ত হয়।

একজন শিক্ষার্থীকে এই সময় সর্বোচ্চ পরিশ্রম দ্বারা গোছানো এবং সমন্বিত প্রস্তুতির মাধ্যমে নিজেকে ভর্তি পরীক্ষার জন্য যোগ্য করে তুলতে হয়। কেননা এই সময়টা শিক্ষার্থীর জীবনের ‘টার্নিং পয়েন্ট’ হিসেবে কাজ করে। বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ভাল করার জন্য মানবিক ও ব্যবসা বিভাগের শিক্ষার্থীদের যে বিষয়ের ওপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হয় তা হল ইংরেজি।

বিগত সালের বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষাসমূহের পরিসংখ্যান দেখলে এটি প্রতীয়মান যে, অধিকাংশ শিক্ষার্থী ইংরেজি বিষয়ে অকৃতকার্য এবং এই বিষয়ে কন্ডিশনাল মার্ক থাকার কারণে অনেকে প্রত্যাশা অনুযায়ী সাবজেক্টে ভর্তির সুযোগ পায়না। সুতরাং বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার্থীদের এই বিষয়ে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় ইংরেজি বিষয়ে ভাল করতে প্রয়োজন সিস্টেমেটিক এবং কালেক্টিভ প্রিপারেশন। এই ক্ষেত্রে একজন শিক্ষার্থীর প্রথম ও প্রধান কাজ হল- বিগত সালের প্রশ্নসমূহের ব্যাখ্যাসহ সমাধান পড়ে ভর্তি পরীক্ষার Question Pattern বুঝার চেষ্টা করা। সে সাথে BCS এর বিগত সালের প্রশ্নসমূহের সমধান করলে হয়ত অনেক প্রশ্ন কমন পেতে পারে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিগত সালের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নসমূহ এনালাইসিস করলে সমস্ত প্রশ্নকে মোটাদাগে তিন ভাগে ভাগ করা যায়— Text Book based Questions, Vocabulary based Questions  এবং  Grammar based Questions.

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরিক্ষার্থীদের এই ৩টি পার্টের উপর সমন্বিত প্রস্তুতি নিতে হবে। কোন অংশকে কম গুরুত্ব দেওয়া যাবে না।  ২০১৯-২০ সেশন থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে Multiple Choice Question (MCQ) এর পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। এই জন্য ইংরেজি পাঠ্য বই ‘English for Today’ এর উপর ভালভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিগত সালের ইংরেজি প্রশ্ন বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, কয়েকটা টপিক থেকে প্রতিবারে প্রশ্ন আসে। টপিকগুলো হল- 

Spelling ( MCQ অংশে একটা Spelling সবসময় থাকে ) 

Synonym & Antonym ( MCQ অংশে ২-৩ টা Synonym & Antonym সবসময় থাকে )

Phrase and Idiom ( MCQ অংশে ১-২ টা Phrase প্রায় থাকে ) 

Appropriate Prepostion ( MCQ অংশে একটা এখান থেকে ২-৩ টা প্রশ্ন প্রায় থাকে )

 Pure Grammar থেকে ৫-৬ টা প্রশ্ন থাকে)

অন্যান্য টপিকের সাথে উপরোল্লিখিত টপিকসমূহের ওপর অধিক গুরুত্বসহকারে গোছানো প্রস্তুতি নিতে হবে। এই ছাড়া লিখিত পরীক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কিছু টপিক সার্কুলারে উল্লেখ করেছে তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ হল-

★ Paragraph

★ বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ

★ ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ

★ পাঠ্যবই ‘English for Today’ থেকে Short Question

★ Precise Writing বা সারাংশ লেখা।

যে সকল শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে খ, গ এবং ঘ ইউনিটে (মানবিক, ব্যবসা শিক্ষা এবং গ্রুপ পরিবর্তন) ভর্তি পরিক্ষা দিবে উপরোল্লিখিত ৫টা বিষয় লিখিত অংশের সবচেয়ে গুরুতপূর্ণ। উল্লেখিত বিষয় সমূহের উপর গুরুত্ব প্রদান করে ইংরেজি বিষয়ে গোছানো এবং সমন্বিত প্রস্ততি নিলে একজন শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় ইংরেজি বিষয়ে ভাল ফলাফল করবে বলে আমার বিশ্বাস।

লেখক:  শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রতিষ্ঠাতা ও লীড ইন্সট্রাকটর Minhaj English Tutorial


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ