কীভাবে নেবেন ঢাবির প্রযুক্তি ইউনিটের ভর্তি প্রস্তুতি

প্রযুক্তি
ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ আগস্ট  © ফাইল ফটো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের অন্তর্গত প্রযুক্তি ইউনিটের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ বিএসসি (ইঞ্জিনিয়ারিং) শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ১০ জুন থেকে, চলবে আগামী ১৫ জুলাই।

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত। সে হিসেবে পরীক্ষার সময় বাকি আছে ২ দুই মাসের কিছু বেশি। চলুন জেনে নেওয়া যাক ঢাবির প্রযুক্তি ইউনিটের শেষ সময়ের ভর্তি প্রস্তুতি কেমন হওয়া উচিত।

মানবণ্টন ও পরীক্ষার সময়

ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রতিবারের মত এবারও ৪টা বিষয়ের উপর ১২০ নাম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে পদার্থে ৩৫ নম্বর, রসায়নে ৩৫, গণিতে ৩৫ এবং ইংরেজিতে ১৫ নম্বর থাকবে। ১২০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষার জন্য সময় থাকবে ৯০ মিনিট। পাস মার্কস ৪৮।

আরো পড়ুন ঢাবি প্রযুক্তি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২০ আগস্ট

প্রশ্নের ধরণ

ঢাবি প্রযুক্তি ইউনিটের কোনো প্রশ্ন ব্যাংক বাজারে পাওয়া যায় না। তাই এই ইউনিটের প্রশ্ন প্যাটার্ন নিয়ে প্রতি বছর পরীক্ষার্থীদের হাজারো প্রশ্ন থাকে। যদিও প্রশ্ন তুলনামূলক অনেক সহজ হয়। অনেক জটিল ম্যাথ কিংবা প্যাচানো ইকুয়েশন অথবা মাথা ঘুরানো রিয়াকশন খুব একটা থাকে না। বেসিক ক্লিয়ার থাকলে খুব সহজেই এগুলো উত্তর করা যায়।

গণিত

ভর্তি পরীক্ষায় গণিত থেকে সর্বমোট ৩৫ মার্কসের এমসিকিউ থাকে। তাই অন্যান্য যেকোনো বিষয় থেকে গণিতের গুরুত্ব অনেক বেশি। উচ্চমাধ্যমিকে বইয়ের যে অংকগুলো বারবার বোর্ডে বিভিন্ন বছর এসেছে সেই অংকগুলো ভর্তি পরীক্ষার জন্যও গুরুত্বপূর্ণ। এবার আসা যাক কিছু অধ্যায় যেখান থেকে সবসময় প্রশ্ন থাকে।

যেমন- যোগজীকরণ, অন্তরীকরণ, ভেক্টর, বিন্যাস ও সমাবেশ, সরল রেখা, বৃত্ত, কোনিক, দ্বিপদী উপপাদ্য, ত্রিকোণমিতি, স্থিতিবিদ্যা ও গতিবিদ্যা।

এখন যে সময় আছে বইয়ের সব ম্যাথ করে শেষ করা যাবে না। তাই আমার সাজেশন হচ্ছে বইয়ের যে ম্যাথগুলো গুরুত্বপূর্ণ মানে বিভিন্ন বোর্ডে বার বর এসেছে সেগুলো বুঝে বুঝে করে ফেলা।

প্রশ্ন প্যাটার্ন সম্পর্কে আরো ভালোভাবে বোঝার জন্য বিগত বছরের একটা ম্যাথ নিচে দিয়ে দেয়া হলোঃ “Examination” শব্দ থেকে ৪টি বর্ণ নিয়ে বিন্যাস ও সমাবেশ করো।

পদার্থ

গণিতের পরেই যে বিষয়টার গুরুত্ব সব চেয়ে বেশী সেটা হল পদার্থ বিজ্ঞান। এডমিশন টেস্টে মোট ৩৫ মার্কসের প্রশ্ন থাকে এই বিষয় থেকে। এই ক্ষেত্রেও বইয়ের অনুশীলনের ম্যাথগুলো সব চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। পদার্থ বিজ্ঞানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়গুলো হচ্ছে: ভেক্টর, গতিবিদ্যা, নিউটনিয় বলবিদ্যা, কাজ ক্ষমতা শক্তি, তরঙ্গ, সরল ছন্দিত স্পন্দন, চল তড়িৎ, স্থির তড়িৎ, জ্যামিতিক আলোকবিজ্ঞান, ভৌত আলোক বিজ্ঞান।

প্রশ্ন প্যাটার্ন সম্পর্কে আরো ভালোভাবে বোঝার জন্য বিগত বছরের একটা ম্যাথ নিচে দিয়ে দেয়া হলো: প্রিজম কোণ ৬০ ডিগ্রি আর নূন্যতম কোণ ৩০ ডিগ্রি হলে, প্রিজমের উপাদানের প্রতিসরনাঙ্ক কত?

রসায়ন

রসায়ন থেকে মোট ৩৫ মার্কসের প্রশ্ন থাকে। রসায়নের জন্য বিভিন্ন অধ্যায়ের গাণিতিক সমস্যা গুলো খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিক্রিয়া এবং যৌগের নাম খুব গুরুত্বপূর্ণ। এগুলো ছাড়াও সংক্ষিপ্ত বিশ্লেষণ, রাসায়নিক প্রক্রিয়া ও পরীক্ষায় আসে। সুতরাং বইয়ে যত ধরনের গাণিতিক সমস্যা আছে সবগুলো করে ফেলা আর গুরুত্বপূর্ণ বিক্রিয়াগুলো একটা খাতায় নোট করে ফেলতে হবে।

অনেকেই জিজ্ঞেস করো জৈব রসায়ন কতটা গুরুত্বপূর্ণ। আসলে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু সম্পূর্ণ অধ্যায় এখন শেষ করার সময় নেই। এখান থেকে নামীয় বিক্রিয়াগুলো আর যৌগের নামগুলো পড়ে যায়।

প্রশ্ন প্যাটার্ন সম্পর্কে আরো ভালোভাবে বোঝার জন্য বিগত বছরের একটা ম্যাথ নিচে দিয়ে দেয়া হলো: ২৭ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৫ গ্রাম অক্সিজেন গ্যাসের অণুসমূহের গতিশক্তি নির্ণয় কর।

ইংরেজি

মোট ১৫ মার্কসের প্রশ্ন থাকে ইংরেজি থেকে, সাধারণত বেসিক গ্রামাটিকাল প্রবলেম দেয়া হয় পরীক্ষায়। বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ, ভার্ভ-এর রাইট ফর্ম ইত্যাদি গ্রামার্টিকাল প্রবলেম থাকে। আন্টোনিম, সিনোনিম- এগুলা প্র্যাক্টিস করা যেতে পারে।

এখন একটা কমন প্রশ্ন- কত পেলে চান্স পাবো? সত্যি বলতে আসলে কত পেলে চান্স পাবে সেটা বলা কঠিন।

আশা করি একটু হলেও কনফিউশন দূর করতে পেরেছি। এখনো যে সময় আছে ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারলে চান্স পাওয়া অসম্ভব না। সবার জন্য শুভ কামনা।

উল্লেখ্য, উপরে যে অধ্যায়গুলোকে গুরুত্বপূর্ণ বলা হয়েছে তার বাইরে অন্য অধ্যায়গুলো থেকেও প্রশ্ন থাকে। তাই আমার সাজেশন আগে ওই অধ্যায়গুলো শেষ করে তারপর অন্য অধ্যায়গুলো পড়ে ফেলা এবং এর সাথে যদি পারো বুয়েট, কুয়েট, চুয়েট আর রুয়েটের প্রশ্ন ব্যাংক একটু উল্টে-পাল্টে দেখা যেতে পারে।

লেখক: শিশির আসাদ, সিইও, ডিইউ মেন্টরস


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ