যেসব উপায়ে শীতেও মসৃণ থাকবে ঠোঁট

টিপস ও টিউটোরিয়াল
শীতের শুষ্ক বাতাসে প্রাণহীন হয়ে পড়ে ঠোঁট  © সংগৃহীত

শীতকাল মানেই ত্বকের সমস্যা। শীতের শুষ্ক বাতাসে প্রাণহীন হয়ে পড়ে ঠোঁট। ফ্যাকাসে হয়ে যাওয়া, ফেটে যাওয়া, চামড়া উঠে যাওয়ার পাশাপাশি ঠোঁট ফেটে রক্তও বের হতে পারে। তাই ঠোঁটের অতিরিক্ত যত্ন জরুরি। আগেভাগে একটু সচেতন হলে সহজেই ঠেকাতে পারবেন শীতে ঠোঁট ফেটে যাওয়ার এই সমস্যাকে। ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে অনেকেই চ্যাপস্টিক আর লিপবাম ব্যবহার করেন। এসব উপাদান হয়তো সাময়িক স্বস্তি দেয়, তা কিন্তু দীর্ঘমেয়াদি সমাধান নয়।

লিপবাম বা চ্যাপস্টিকের বিকল্প হিসেবে প্রাকৃতিক উপায়ে ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে পারেন। শীতকাল জুড়ে মসৃণ ও নরম ঠোঁট পেতে চাইলে জেনে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস। 

* ঘুমাতে যাওয়ার আগে তো বটেই, সারাদিনই বারবার লিপবাম লাগাবেন ঠোঁটে। ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হলে লিপবামের বদলে ব্যবহার করুন পেট্রোলিয়াম জেলি। 

* দাঁত দিয়ে বা হাত দিয়ে টেনে চামড়া ওঠাবেন না ঠোঁট থেকে। জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজানোর অভ্যাস থাকলেও সেটা বাদ দিন। এতে ঠোঁট আরও শুষ্ক হয়ে পড়ে।

* গোলাপজলের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ঠোঁট ম্যাসাজ করুন।

* অল্প দুধে গোলাপের পাপড়ি ভিজিয়ে বেটে নিন ঠোঁটে লাগাতে পারেন। তবে ফাটা ঠোঁটে দেবেন না। 

* টাটকা গোলাপের পাপড়ি নিয়ে কাঁচা দুধে কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। তারপর সারা দিনে অন্তত তিনবার এটা ঠোঁটে লাগান। ঠোঁট হবে কোমল ও মসৃণ। গোলাপের পাপড়ি, দুধের সর বা মাখন ঠোঁটে প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখলেও কালচে ভাব চলে যাবে।

* ঘর আর্দ্র রাখার জন্য ব্যবহার করুন হিউমিডিফায়ার।

* ক্যাস্টর অয়েল বা নারিকেল তেল আঙুলের সাহায্যে ঠোঁটে লাগান। ঠোঁট নরম ও মসৃণ থাকবে।

* ঠোঁট ফাটা রোধ করতে অ্যালোভেরা জেল ম্যাসাজ করতে পারেন ঠোঁটে।

* অল্প একটু চিনির সঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে ঠোঁট ম্যাসাজ করুন। জমে থাকা মরা চামড়া দূর হবে।

আরও পড়ুন: সকালে খালি পেটে খেজুর খেলে পাবেন নানান উপকারিতা

* ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে দীর্ঘদিন ধরেই নারকেল তেলের ব্যবহার দেখা যায়। এতে প্রচুর পরিমাণ ফ্যাটি অ্যাসিড আছে, যা ঠোঁটের শুষ্কতা দূর করে। ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে নিয়মিত নারকেল তেল লাগাতে পারেন।

* ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যাওয়া থেকে মুক্তি অ্যালোভেরার রস ঠোঁটে লাগাতে পারেন। অ্যালোভেরা খুব সহজলভ্য। বাসার ছাদের টবে এই গাছ লাগানো যায়।

* এক ফোঁটা ঘি ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। এটি শুষ্কতা কমিয়ে ঠোঁট নরম রাখতে সাহায্য করবে।

* অলিভ অয়েল প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে পরিচিত। এতে যে ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, তা ত্বকের শুষ্কতা দূর ও ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে পারে। দিনে দুবার ঠোঁটে অলিভ অয়েল মাখলে ঠোঁট নরম ও মসৃণ হবে।

* পানি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কিন্তু জানেন কি, পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খেলে তা আপনার ঠোঁট নরম রাখতেও সাহায্য করবে। অনেক সময় ডিহাইড্রেশনের ফলে ‘ডার্ক লিপ্স’য়ের সমস্যা হতে পারে। তাই পর্যাপ্ত পানি পান করুন। এতে করে ঠোঁটের ত্বকে আর্দ্রতা বজায় থাকবে।


সর্বশেষ সংবাদ