সুস্বাস্থ্য রক্ষায় জেনে নিন আখরোটের উপকারিতা

টিপস ও টিউটোরিয়াল
আখরোট  © সংগৃহীত

আখরোট এক ধরনের বীজ বা এক প্রকার বাদাম। যারা আখরোট পছন্দ করেন তারা এর বৈশিষ্ট্য ও গুণাগুণ সম্পর্কে জানেন। এতে রয়েছে ভিটামিন ই, ভিটামিন বি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে, প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ওমেগা থ্রি, ফ্যাটি অ্যাসিড, ফাইবার ও বায়োটিনসহ রয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

পুষ্টিবিদদের মতে, সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে সকালে আখরোট খেলে বেশি উপকারিতা পাওয়া যায়। এজন্য রাতে ৪ থেকে ৬ টি আখরোট ভিজিয়ে রেখে সকালে খেতে পারেন। এছাড়া যদি আপনি এক গ্লাস দুধের সাথে আখরোট খান তবে আপনি আরও বেশি উপকৃত হবেন।

এছাড়া আখরোটে রয়েছে প্রচুর পুষ্টি। এতে কার্বোহাইড্রেট কম থাকায় সহজেই হালকা খাবার বা জলখাবার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে ওমেগা থ্রি থাকায় যারা মাছ খায় না বা মাছ খেতে পছন্দ করেন না তারা সাগরের মাছের বিকল্প হিসেবে আখরোট খেতে পারেন।

এক নজরে দেখে নিন আখরোট খাওয়ার উপকারিতা-

মস্তিষ্কের বিকাশ করে : আখরোটের নিয়মিত সেবন মস্তিষ্ককে তীক্ষ্ণ করে তোলে, তাই এটি মস্তিষ্কের খাদ্য হিসাবেও পরিচিত। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই থাকায় এটি মনকে তীক্ষ্ণ এবং স্বাস্থ্যকর রাখে।

ওজন নিয়ন্ত্রণ করে : আখরোট খাওয়া শরীরের ওজন কমাতে সহায়তা করে। যারা ওজন কমাতে চান তাদের নিয়মিত আখরোট খাওয়া উচিত।

অনিদ্রা দূর করে : আখরোট খাওয়ার ফলে শরীরে স্বাচ্ছন্দ্য এবং ভাল ঘুম হয়। নিয়মিত আখরোট সেবনে অনিদ্রা জনিত সমস্যা দূর হয় এবং শরীর সুস্থ্য থাকে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে: ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে আখরোটে বিশেষ ভূমিকা রাখে। এতে থাকা  ভিটামিন বি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সুস্থ ত্বকের জন্য বিশেষ উপযোগী। ত্বকের বলিরেখা কমাতে এবং বয়সের ছাপ দূর করতে আখরোট সাহায্য করে।

আরও পড়ুন: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে ‘নাম সর্বস্ব’ বিশ্ববিদ্যালয় পবিপ্রবি।

হার্টের পক্ষে ভাল : আখরোটে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা খারাপ কোলেস্টেরল মাত্রা কম করে হার্টকে সুস্থ রাখে।

ডায়াবেটিস ঝুঁকি কমায় : আপনি যদি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন তবে আখরোট খাওয়া উপকারী। নিয়মিত সেবন করলে আপনি ডায়াবেটিস এড়াতেও পারেন। আখরোট ডায়াবেটিস ২ তে আরাম দেয় ।

শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়ায় : যে সব পুরুষ নিয়মিত আখরোট সেবন করেন তাদের শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়ার ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

পেট পরিষ্কার করে : আখরোটের নিয়মিত সেবন হজম শক্তি উন্নত করে । এতে থাকা ফাইবার পেট পরিষ্কার করে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধ : কোলন ক্যান্সারের জটিলতায় আখরোট সেবন উপকারী। এর সেবনে ব্যথা কমে যায় এবং দুর্বলতা আসে না।

গর্ভবতী মহিলাদের জন্য উপকারি : গর্ভবতী মহিলাদের নিয়মিত আখরোট খাওয়া উচিত। এতে উচ্চমাত্রায় ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে যা মা ও শিশুর জন্য উপকারী। এটি গর্ভের শিশুর এলাৰ্জি প্রতিরোধেও সাহায্য করে ।

চুলের জন্য উপকারি: আখরোটে থাকে বায়োটিন যা চুলকে শক্তিশালী করে । এই ভিটামিন চুল পড়া কমিয়ে চুলের গোড়া মজবুত করে চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।


সর্বশেষ সংবাদ