ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কি সেনানিবাস— প্রশ্ন রিজভীর

ঢাবি
রিজভীর ঢাবি ক্লাবে যাওয়ার সিসিটিভি ফুটেজ ফেসবুকে ফাঁস হয়েছে  © সংগৃহীত

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে যাওয়া নিয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও ক্লাবের সভাপতি ওবায়দুল ইসলামকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষক নেতা ওবায়দুল ইসলাম। এ ঘটনায় কারণ দর্শানোর পাশাপাশি অনুসন্ধানে কমিটিও গঠন করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে বিএনপির নয়াপল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে সংবাদ সম্মেলনে এসে রুহুল কবির রিজভীর প্রশ্ন করেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কি সেনানিবাস। সেখানে যাওয়া নিষেধ রয়েছে।

আরও পড়ুন: গভীর রাতে ঢাবি ক্লাবে বিএনপির রিজভী, কারণ জানাতে হবে শিক্ষককে

তিনি বলেন, সংবাদ বেরিয়েছে আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে গিয়েছি এবং সেখানে নাশকতার ষড়যন্ত্র করছি। কেন আমি সেখানে গেলাম? আমরা কথা হলো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালরয় কি সেনানিবাস? তাতো নয়। সেখানে আমাদের বন্ধুবান্ধব আছে।

তিনি আরও বলেন, এটি একটি স্বায়ত্ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান। এখান শিক্ষক-কর্মকর্ম-কর্মচারী সবাই থাকেন। এরমধ্যে আমাদের বন্ধুবান্ধব থাকবে পারে। আর তারা যদি দাওয়াত দেন এবং সেখানে যাই। তারা এখানে ষড়যন্ত্রতত্ত্ব কি করে দাঁড় করালো? 

জানা যায়, গত রোববার রাতে রিজভী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে যান। সেখানে তিনি অবস্থান করেন রাত ১টা পর্যন্ত। সঙ্গে তার স্ত্রী ও বন্ধুরাও ছিলেন। পরে সিসিটিভি ফুটেজে ঢাবি ক্লাবে যাওয়ার এই দৃশ্য ফেসবুকে ফাঁস হয়েছে। 

এ বিষয়ে

এ বি এম অধ্যাপক ওবায়দুল ইসলাম বলেন, রাতে ক্লাবে শিক্ষকদের অতিথিরা আসেন, খাওয়া-দাওয়া করেন। খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আমি শিক্ষক এবং ক্লাবের সভাপতি। আমার আমন্ত্রণেও কিছু অতিথি এসেছিলেন। কোনো বৈঠক হয়নি, আড্ডা হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ