প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ডায়ানা ল্যাগেসি অ্যাওয়ার্ডের বিচারক হলেন এই তরুণী

শমী হাসান চৌধুরী
শমী হাসান চৌধুরী  © টিডিসি ফটো

প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ‘২০২১ ডায়ানা ল্যাগেসি এডওয়ার্ড’ এর বিচারক হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন বাংলাদেশী তরুণী শমী হাসান চৌধুরী। চলতি মাসেই প্রিন্সেস ডায়ানার ভাই লর্ড স্পেন্সার-এর সঙ্গে আন্তর্জাতিক নমিনেশন থেকে প্রথম ২০ জনকে বাছাই করতে কাজ শুরু করবেন শমি।

আগামী ৯ ডিসেম্বর ‘আলথর্প হাউস’-এডওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করবেন লর্ড স্পেন্সার। যেখানে সারা বিশ্ব থেকে মানবিক কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০ জন তরুণকে প্রদান করা হবে ডায়ানা ল্যাগেসি এডওয়ার্ড-২০২১।

ডায়ানা ল্যাগেসি এডওয়ার্ড মর্যাদাপূর্ণ ও প্রশংসামূলক একটি পুরস্কার। ডিউক অব ক্যামব্রিজ ও ডিউক অব সাসেক্স এসটি জেমস প্যালেসে ২০১৭ সালে প্রথমবারের মতে এই এডওয়ার্ডের প্রবর্তন করেন। সামাজিক ও মানবিক কাজে অংশগ্রহণের জন্য এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

২০১৯ সালে যুক্তরাজ্যের পেইন্টেড হলে লর্ড স্পেন্সার হতে প্রথম ও একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে মর্যাদাপূর্ণ এই ডায়ানা ল্যাগেসি এডওয়ার্ড গ্রহণ করেছিলেন শমী হাসান চৌধুরী। এছাড়াও শমী ২০২০ ডায়ানা এডওয়ার্ডের বিচারক হিসেবেও কাজ করেছিলেন।

এ বিষয়ে শমী হাসান চৌধুরী বলেন, অসংখ্য যোগ্য তরুণ হতে ২০ জনকে বাছাই করা অত্যন্ত কষ্টসাধ্য ব্যাপার। লর্ড স্পেন্সার ও অন্যান্য বিখ্যাত লোকদের সঙ্গে বিচারকের আসনে থাকতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান বোধ করছি।

উল্লেখ্য, হাত ধোয়া, স্যানিটেশন সচেতনতা, স্বাস্থ্য সুরক্ষাসহ বস্তিতে থাকা মানুষদের আচার, ব্যবহার ও সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে কাজ করছে শমীর এনজিও প্রতিষ্ঠান অ্যাওয়ারনেস ৩৬০। জাতিসংঘের এসডিজি নিয়ে বিশ্বের ২৩টি দেশে কাজ করা ২৬ বছর বয়সী শমী এবং তার সহ-প্রতিষ্ঠাতা সম্প্রতি উঠে এসেছেন ফোবর্সের ৩০ বছরের কম বয়সী এশীয় অঞ্চলের ৩০০ তরুণের তালিকায়ও।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ