টিকা নিতে গিয়ে মারামারি, কলেজ ছাত্রলীগের ৪ কর্মী বহিষ্কার

টিকা নিতে গিয়ে মারামারি, কলেজ ছাত্রলীগের ৪ কর্মী বহিষ্কার
টিকা নিতে গিয়ে মারামারি, কলেজ ছাত্রলীগের ৪ কর্মী বহিষ্কার  © ফাইল ছবি

রাজধানীর মহাখালী শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে করোনাভাইরাসের টিকা নিতে গিয়ে মারামারির ঘটনায় সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখা ছাত্রলীগের ৪ কর্মীকে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বহিষ্কারের কথা জানানো হয়েছে।

ছাত্রলীগের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মহাখালী শেখ রাসেল জাতীয় গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী মোর্শেদ আলম, মো. রাসেদ, সাইফুল ইসলাম ও মিঠুকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

এদিকে, এ ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাকিব হোসেন, সাহিত্য সম্পাদক আসিফ তালুকদার, শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. রিপন মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মোড়লকে সাথে নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বিজ্ঞপ্তিতে সাময়িক বহিষ্কৃতদের আগামী ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত কমিটির কাছে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, এদিন সকালে কলেজ ছাত্রলীগের কয়েকজন সদস্য শেখ রাসের গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে টিকা নিতে যান। পরে সেখানে থাকা দায়িত্বরত আনসার সদস্যদের সঙ্গে তাদের মারামারির ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও তদন্ত কমিটির সদস্য জুয়েল মোড়ল বলেন, ক্যাম্পাস ছাত্রলীগের কিছু সদস্য টিকা নিতে গিয়ে দেখেন সেখানে প্রবাসীদের টিকা দেওয়া হচ্ছিলো। এ সময় তাদের সাথে দায়িত্বরত আনসার সদস্যদের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তারা আমাদের শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা করে।

জুয়েল আরও বলেন, ছাত্রলীগ কর্মীদের তাতাহতের খবর শুনে ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরাও সেখানে গেলে তাদের সঙ্গে আনসারদের সহিংসতার ঘটনা ঘটে। আমরা খবর পেয়ে ঘটস্থলে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে আমরা হাসপাতাল পরিচালকের সঙ্গে বসে কথা বলে সমাধান করেছি।

বহিষ্কারের বিষয়ে জুয়েল মোড়ল বলেন, তারা ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত থাকায় তাদের বিরুদ্ধে সংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা তদন্ত করে তিন কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবো।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ

x