ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

মধুর ক্যান্টিন হয়ে উঠেছে ছাত্রলীগের নতুন পাঠশালা

মধুর ক্যান্টিন হয়ে উঠছে নতুন পাঠশালা
মধুর ক্যান্টিনে ঢাবি ছাত্রলীগের পাঠচক্র  © সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যাটিন কিংবা মধুর রেস্তোরাকে বলা যেতে পারে ছাত্র রাজনীতির আঁতুড়ঘর। খাবারের গুণগত মানের পাশাপাশি প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠনগুলোর রাজনৈতিক কর্মসূচির কেন্দ্রভূমি হিসেবেও প্রসিদ্ধ এই মধুর রেস্তোরা। তবে সেখানে ধারাবাহিক পাঠচক্রের উদ্বোধন করে মধুর রেস্তোরার সাথে আরেকটি বিশেষণ যোগ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

শনিবার (৯ অক্টোবর) ঢাবি শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন এ পাঠচক্রের উদ্বোধন করেন। পাঠচক্রে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে সাদ বিন কাদের চৌধুরী, ফুয়াদ হোসেন শাহাদাত, সৈয়দ মুহাম্মদ আরিফ হোসেন এবং ঢাবি সাহিত্য সম্পাদক রাকিব সিরাজীসহ ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতা-কর্মী এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। 

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘শিক্ষা-শান্তি-প্রগতি এই তিনটি মূল নীতিতে কাজ করছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। আমরা শিক্ষার্থীদের মূল কাজ যে জ্ঞানার্জন সেটি তুলে ধরতে এবং তাদের পাঠে ফেরাতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিনে এ উদ্যোগটি নিয়েছি এবং সপ্তাহে একদিন এটি অনুষ্ঠিত হবে। বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে শিক্ষার্থীরা এখানে জ্ঞানার্জন করতে পারবে। পাঠচক্র ধারাবাহিকভাবে চলবে।’

পাঠচক্র শেষে শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতিযোগিতামূলক প্রোগ্রাম থাকবে কি না এমনটি জানতে চাওয়া হলে ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতি আরও বলেন, ‘প্রাথমিক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারে রোজনামচাসহ তিনটি বইয়ের উপর পাঠচক্র হচ্ছে। পাঠচক্র শেষে প্রতিযোগিতা হবে এবং বিজয়ীদের পুরস্কৃতও করা হবে।’

ঢাবি ছাত্রলীগ সাহিত্য সম্পাদক এসএম রাকিব সিরাজী বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উদ্যোগে মধুর ক্যান্টিনে বঙ্গবন্ধু কর্ণার ও শেখ হাসিনা স্টাডি সেন্টারের নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে পাঠচক্রের সূচনা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা এখান থেকে একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য পছন্দের বই নিয়ে পড়তে পারবে।’


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ