ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই নেতার জামিন হয়নি

আটক ও জামিন
ছাত্র অধিকার পরিষদ  © লোগো

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংঘর্ষে পুলিশের করা মামলায় ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই নেতা বিন ইয়ামিন মোল্লা ও আরেফিন হোসেনের জামিন আবেদন নাকচ করেছে আদালত। ফলে তাদের কারাগারেই থাকতে হচ্ছে।

মঙ্গলবার (৪ মে) ঢাকার মুখ্যমহানগর আদালতের (সিএমএম) হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারীর ভার্চুয়াল আদালত এই আদেশ দেয়।

আসামি দুজনের মধ্যে ইয়ামিন ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্বিবদ্যালয় শাখার সাবেক সভাপতি। আরেফিন সংগঠনটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ক্রীড়া সম্পাদক।

আসামিদের পক্ষে আবেদন করেন খাদেমুল ইসলাম ও সিরাজুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন শাহবাগ থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) নিজাম উদ্দিন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে জামিন আবেদন নাকচ করে দেন বিচারক।

ইয়ামিন-আরেফিনসহ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ১২ নেতাকর্মীকে দুই মামলায় গত ১৯ এপ্রিল দুই দিনের রিমান্ড দেয় আদালত। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গত ৩০ এপ্রিল তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গত ২৭ মার্চ পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ান। এতে পুলিশের কয়েকজন সদস্য আহত হন। পরে এই ঘটনায় শাহবাগ থানায় বিস্ফোরক ও হত্যাচেষ্টা মামলা হয়।

এই মামলার আসামি করা হয়েছে ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান, যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেনকেও।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ