ছাত্রলীগ ইডেন কলেজের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে: ছাত্রদল

ইডেনের রাজনীতি
লোগো  © টিডিসি ফটো

ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের মারামারি, শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে কলেজের ভাবমূর্তি দারুণভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এ অভিযোগে ছাত্রলীগকে ‘না’ বলার আহ্বান জানিয়েছে শাখা ছাত্রদল। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক রেহানা আক্তার শিরিন ও সদস্য-সচিব সানজিদা ইয়াসমিন তুলি স্বাক্ষরিত যৌথ বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে শাখা ছাত্রদল বলছে, ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের প্রেক্ষাপটে সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখীর গণমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে অকপটে যে তথ্য উত্থাপন করেছেন, এতে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়েছে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে সাধারণ ছাত্রীরা নিরাপদ নয়।

সাধারণ ছাত্রীদের নিয়মিত উপস্থিতি খাতায় স্বাক্ষর করার সময়ও ছাত্রলীগের ক্যাডাররা তাদের ছবি তুলে রাখেন এবং পরবর্তীতে রুমে ডেকে নিয়ে কুপ্রস্তাব দেয়। এসকল প্রস্তাবে রাজি না হলে সাধারণ ছাত্রীদের ভয় দেখিয়ে হুমকি দেয় এবং অত্যাচারও করেন। বৈশাখীর সাক্ষাতকারে তাদের শীর্ষ দায়িত্বে থাকা দুই নেত্রীর যেসব ‘বিজনেসের’ কথা উল্লেখ করেছেন সেগুলি মুখে আনতেও ছাত্রদল বিব্রতবোধ করে ও অরুচিশীল মনে করেন।

আরও পড়ুন: ইডেন ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত, ১৬ নেতাকর্মী স্থায়ী বহিষ্কার

বিবৃতিতে তারা বলেন, ছাত্রলীগের নেত্রীরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিজেদেরকে কলেজ প্রশাসনের চাইতেও বেশি প্রভাবশালী মনে করেন। আমরা তাদের এহেন কর্মকান্ডের প্রতিবাদ জানাই। ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা নিজেদের মধ্যে ঝামেলা সৃষ্টি করে যে বাজে পরিস্থিতি তৈরি করেছে এতে ইডেন মহিলা কলেজের মতো স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হরেছে। তাই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের পক্ষ থেকে তাদের এই অবৈধ ও বেহায়াপনার বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। 

নেতৃদ্বয় আরো বলেন, দুর্বিত্তায়নে প্রবল বেগে ছুটে চলা দেউলিয়াত্ব ছাত্রলীগ তাদের এসকল অনৈতিক, বেআইনি ও অপরাধমূলক কর্মকান্ড করার জন্যই ছাত্রদলসহ অন্যান্য ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনকে ক্যাম্পাসের বাইরে রাখতে চায়। একইসঙ্গে ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের চেহারা উন্মোচিত করে কলেজ ক্যাম্পাসকে কলঙ্কমুক্ত করার জন্য কলেজ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। এছাড়া ক্যাম্পাসে ক্রিয়াশীল সকল ছাত্র সংগঠনের রাজনৈতিক সহাবস্থানের দাবিও জানানো হয়েছে।

এর আগে গত রবিবার দুপুরে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে ছাত্রী নিবাসের সিট বাণিজ্য, চাঁদাবাজি, শিক্ষার্থী নির্যাতনসহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ এনে দুজনকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে কলেজ ছাত্রলীগের ২৫ নেত্রী। সিটবাণিজ্য ও চাঁদাবাজির অভিযোগ ওঠার পর এ বিষয়ে বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করতে গিয়ে হামলার শিকার হন ছাত্রলীগ সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা।


x

সর্বশেষ সংবাদ