অভিষেকে জোড়া গোল রোনালদোর

ফুটবল
গোলের পর উদযাপন  © সংগৃহীত

এক যুগ পর সেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ঘরের ছেলে ঘরে ফিরেই হাজারো সমর্থকদের উল্লাস ও উদযাপনের উপলক্ষ এনে দিলেন। করলেন জোড়া গোল। আর তাতে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড যেন লালের সমুদ্রে ভেসে গেল।

শনিবার রাতে ঘরের মাঠে নিউক্যাসেলের বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ম্যানইউ ম্যাচটিতে মাঠে নেমেই গোল করে ম্যানইউকে এগিয়ে দেন সিআর সেভেন। এরপর নিউক্যাসল গোলটি পরিশোধ করে। কিন্তু রোনালদোকে থামানো যে প্রায় অসম্ভব। ম্যাচের ৬২তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করে ইংলিশ জায়ান্টদের আবারও এগিয়ে দেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস তারকা।  

রোনালদোর বিশেষ ম্যাচটিতে তাকে প্রথম একাদশে রাখা হয়েছিল। মাঠভর্তি দর্শকের সামনে শুরু থেকেই সেই চিরচেনা রূপে ধরা দেন তিনি। নেতৃত্ব দেন প্রবল আক্রমণে। শেষে জয়ও ছিনিয়ে আনেন তিনিই। ফেরার ম্যাচেই তিনি দেখিয়ে দিলেন, তাকে ঘিরে এবার বহুদিনের অধরা লিগ আর চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জেতার স্বপ্ন বুনতেই পারে ম্যানইউ।

মাঠভর্তি দর্শকের সামনে শুরু থেকেই সেই চিরচেনা রূপে ধরা দেন রোনালদো। প্রথমার্ধের মূল সময় শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে ম্যানইউকে এগিয়ে দেন রোনালদো। ১২ বছর পর পুনরাভিষেকে এটা তার প্রথম গোল। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৬তম মিনিটে গোলটি পরিশোধ করে ফেলে নিউক্যাসেল। ম্যাচে চলে আসে উত্তেজনা। ৬২তম মিনিটে রোনালদো নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে ম্যনইউকে আবারও এগিয়ে দেন।  

ম্যাচের শেষ ২০ মিনিটে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। ৮০তম মিনিটে তৃতীয় গোলটি করেন রোনালদোর স্বদেশী ব্রুনো ফার্নান্দেজ। স্কোরলাইন হয়ে যায় ৩-১। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে আবারও গোল। নিউক্যাসেলের জালে এবার বল জড়ান জেসি লিংগার্ড। আর তাতেই বিশাল জয় তুলে নেয় ওলে গানার সুলশারের দল।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ