৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকালেন পোলার্ড

৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকালেন পোলার্ড
  © সংগৃহীত

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের অলরাউন্ডার কাইরন পোলার্ডের নাম এখন নেওয়া হবে স্যার গ্যারফিল্ড সোবার্স, রবি শাস্ত্রী, হার্শেল গিবস, যুবরাজ সিং, মিসবাহ-উল-হক, রবীন্দ্র জাদেজা আর হজরতউল্লাহ জাজাইয়ের সঙ্গে।

পোলার্ড হাকিয়েছেন ৬ বলে ৬টি ছক্কা। তার এই ঝড়ে উড়ে গেছে শ্রীলঙ্কাও। অ্যান্টিগায় সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ৪ উইকেটে। এই ম্যাচে অবশ্য ঘটে গেছে নানা নাটকীয়তা। নাটকীয়তার কেন্দ্রবিন্দু আবার দুইজন। আকিলা ধনঞ্জয়া আর পোলার্ড।

ধনঞ্জয়ার এক ওভারের ৬ বলের ৬ টিতেই ছক্কা হাঁকিয়েছেন পোলার্ড। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারটা করতে এসে ধনঞ্জয়া হজম করলেন গুনে গুনে ঠিক ৬টি ছক্কা। লং অনের উপর দিয়ে শুরু পোলার্ড ঝড়। স্কয়ার লেগের উপর দিয়ে করলেন সেই ঝড়ের সমাপ্তি। ফলে যুবরাজের পর আন্তর্জাতিক টি-২০ তে মাত্র ২য় ব্যাটসম্যান হিসেবে এই বিরল কীর্তি গড়ে দেখালেন পোলার্ড।

একই ম্যাচে নিজের আগের ওভারেই অবশ্য ইতিহাস গড়েছিলেন ধনঞ্জয়া। পেয়েছিলেন ৩য় শ্রীলঙ্কান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি হ্যাট্ট্রিকের দেখা। কে ভেবেছিল এমন দুর্দান্ত শুরু করা ধনঞ্জয়ার কপালে পরের অভারেই ৬ বলে ৬ ছক্কা অপেক্ষা করছে। পোলার্ড হইতো সেই হ্যাট্ট্রিকের প্রতিশোধটাই নিলেন এমন নির্মমভাবে।

ধনঞ্জয়া পর পর ৩ বলে তুলে নিয়েছিলেন এভিন লুইস, ক্রিস গেইল আর নিকোলাস পুরানের উইকেট। শ্রীলঙ্কার দেয়া ১৩২ রানের লক্ষ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ অবশ্য পেরিয়ে গেছে ৪১ বল হাতে রেখেই।

ক্রিকেট ইতিহাসে ছয় বলে ছয় ছক্কার প্রথম কীর্তিটি ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান গ্রেট গ্যারফিল্ড সোবার্সের। ১৯৬৮ সালে ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেটে গ্ল্যামারগন ও নটিংহ্যামশায়ারের ম্যাচে গ্ল্যামারগনের ম্যালকম ন্যাশের এক ওভারে ছয়টি ছক্কা মেরে ইতিহাস গড়েন। এর পরের ঘটনাটি ১৯৮৪ সালের। ভারতের রবি শাস্ত্রী বোম্বে ও বারোদার মধ্যকার রঞ্জি ট্রফির এক ম্যাচে বারোদার তিলক রাজকে ছয় ছক্কা মারেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওভারে ছয় ছক্কার প্রথম কীর্তি দক্ষিণ আফ্রিকার হার্শেল গিবসের। ২০০৭ সালে ক্যারিবীয় বিশ্বকাপে নেদারল্যান্ডসের ড্যান ফর বাঙ্গের ওভারকে দুঃস্বপ্নে পরিণত করেন তিনি। এর মাত্র কয়েক মাস পর দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে অনুষ্ঠিত প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডকে ছয় ছক্কা মারেন যুবরাজ।

ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে আবারও ছয় ছক্কার কীর্তি নতুন করে লেখেন ইংলিশ ক্রিকেটার অ্যালেক্স হেলস। ২০১৫ সালে টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে নটিংহ্যামশায়ারের হয়ে ওয়ারউইকশায়ারের হয়ে ছয় ছক্কা মারেন বয়োড র‍্যাঙ্কিনকে।

২০১৭ সালেই ৪২ বছর বয়সে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ ছয় ছক্কার কীর্তি গড়েন হংকংয়ের একটি টি-টোয়েন্টি লিগে। একই বছর ভারতের সৌরাষ্ট্রের একটি টি-টোয়েন্টি লিগে ছয় ছক্কার রেকর্ড গড়েন রবীন্দ্র জাদেজা।

২০১৮ সালে আফগান প্রিমিয়ার লিগে হজরতউল্লাহ জাজাই এই কীর্তি গড়েন। ওই ম্যাচে হজরতউল্লাহ ৪ বাউন্ডারি ও ৭ ছক্কায় ১৭ বলে করেন ৬২ রান।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ