‘আপত্তিকর’ সেই বিজ্ঞপ্তি সরিয়ে নেবে প্রিপারেটরি স্কুল

মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ
মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ  © ফাইল ছবি

রাজধানীর মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ ২০২২ সালে প্লে গ্রুপে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে দেয়া আপত্তিকর সেই বিজ্ঞপ্তিটি প্রত্যাহার করে নিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে সমালোচনার পর প্রাথমিকভাবে ওয়েবসাইট থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

কলেজ অধ্যক্ষ মো. বেলায়েত হুসেন জানান, ১৯৭৬ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই নিয়মগুলো চলে আসছে। এতদিন কেউ আপত্তি তোলেনি। তবে আপত্তি যেহেতু এসেছে, সামনে আমাদের মিটিং রয়েছে ওই মিটিংয়ে অফিসিয়ালি বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করা হবে।

এর আগে, স্কুলটির ওয়েবসাইটে ২০২২ সালে প্লে গ্রুপে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীর যোগ্যতা ও নিয়মাবলি নিয়ে বিজ্ঞপ্তিটি দেয়া হয়।

এতে দেখা যায়, শিক্ষার্থীর যোগ্যতা’ অংশে তিনটি শর্ত দেওয়া আছে। এগুলো হলো- বয়স, উচ্চতা ও ওজন। বয়সের শর্তে লেখা আছে, ১ জানুয়ারি ২০২২ সালে বয়স চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে হতে হবে।

উচ্চতার শর্তে বলা হয়েছে, তিন ফুট থেকে তিন ফুট আট ইঞ্চির মধ্যে হতে হবে। ওজনের শর্তে লেখা আছে, ১৩ থেকে ২১ কেজির মধ্যে হতে হবে। ওজনের অংশে তিনটি উপশর্ত দেওয়া হয়েছে। এগুলো হলো- শিক্ষার্থীর সব দুধদাঁত (২০টি) অটুট থাকতে হবে। শারীরিক ও মানসিকভাবে সুস্থ হতে হবে। ছোঁয়াচে রোগ থাকলে ভর্তির জন্য বিবেচিত হবে না।

এ বিষয়ে শিক্ষাবিদ ও আইন বিশ্লেষকরা বলছেন, এটা প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন ২০১৩-এর স্পষ্ট লঙ্ঘন এবং শিশুদের এ ধরনের বৈষম্যের মধ্যে ঠেলে দেওয়া অবশ্যই শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিবাদ জানিয়ে বলা হয়েছে ‘এটি বর্ণবাদ-বৈষম্য’।


মন্তব্য

x