স্নাতক পড়ুন কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে

স্নাতক পড়ুন কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে
অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়, কানাডা  © সংগৃহীত

কানাডার রাজধানী অটোয়া। একটি দেশের রাজধানী বা শহর বললেই সাধারণত অগণিত মানুষের সমাগম, যত্রতত্র গড়ে উঠা অট্রালিকা কিংবা তীব্র যানজটের চিত্র আমাদের চোখে ভেসে উঠে। কিন্তু এদিক থেকে শহর হিসেবে অটোয়া সম্পূর্ণ ভিন্ন। খুবই পরিকল্পিত একটি শহর।

কানাডা হচ্ছে শিক্ষার্থীদের জন্য অপার সম্ভাবনাময় দেশ। বর্তমানে দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছেন। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষার মান, স্কলারশিপ প্রাপ্তি, বাৎসরিক টিউশন ফি, আবাসন সুবিধা, শিক্ষার্থীদের আয়ের পথ এবং শিক্ষাজীবন শেষে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ দিয়ে থাকে কানাডা।

নানা ধরনের স্কলারশিপ নিয়ে পড়ার সুযোগ দিচ্ছে কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশসহ যে কোনো দেশের শিক্ষার্থীরা এ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। বিভাগভেদে আবেদনের সময়সীমার ভিন্নতা রয়েছে। বিভাগভেদে আবেদনের শেষ তারিখ জানতে ক্লিক করুন এখানে

বিশ্ববিদ্যালয়টিতে স্নাতকে নানা ধরনের স্কলারশিপ প্রদান করা হয়ে থাকে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- প্রেসিডেন্ট স্কলারশিপ, চ্যান্সেলর স্কলারশিপ, এক্সিলেন্স স্কলারশিপ, মেরিট স্কলারশিপ, আর্টস ফ্যাকাল্টি মেরিট স্কলারশিপ ও অটোয়া ইউনিভার্সিটি ফিনান্সিয়াল এইড বার্সারি। এসব স্কলারশিপের আওতায় ৩০ হাজার ডলার পর্যন্ত আর্থিক অনুদান পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। স্নাতকের সময়সীমা ৪ বছর।

পড়ুন স্কলারশিপ নিয়ে স্নাতক পড়ুন যুক্তরাজ্যের ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ে

এসব স্কলারশিপের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কলা, শিক্ষা, প্রকৌশল, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান, আইন, ব্যবস্থাপনা, মেডিসিন, বিজ্ঞান ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদের বিভিন্ন বিভাগে পড়তে পারবেন। বিভাগগুলো সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন এখানে

অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয় কানাডার রাজধানী অটোয়ায় অবস্থিত একটি পাবলিক গবেষণা বিশ্ববিদ্যালয়। ১৮৪৮ সালে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ নিয়ে পড়ুন চীনের সিংহুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে

সুযোগ-সুবিধাসমূহ:

* প্রেসিডেন্ট স্কলারশিপের আওতায় শিক্ষার্থীদের মোট ৪ বছরে ৩০ হাজার ডলার প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ২৬ লক্ষ টাকা।
* চ্যান্সেলর স্কলারশিপের আওতায় শিক্ষার্থীদের মোট ৪ বছরে ২৬ হাজার ডলার প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় সাড়ে ২২ লক্ষ টাকা।
* এছাড়াও এক্সিলেন্স স্কলারশিপ, মেরিট স্কলারশিপ, আর্টস ফ্যাকাল্টি মেরিট স্কলারশিপ ও অটোয়া ইউনিভার্সিটি ফিনান্সিয়াল এইড বার্সারি পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। বিস্তারিত তথ্যের জন্য ক্লিক করুন এখানে

আবেদনের যোগ্যতা:

* উচ্চমাধ্যমিকে ভালো ফলধারী হতে হবে।
* বিভাগভেদে আলাদা আলাদা প্রয়োজনীয়তা পূরণ করতে হবে। বিস্তারিত জানতে পড়ুন
* ইংরেজি দক্ষতা সনদ প্রদর্শন করতে হবে। আইইএলটিএস এ ন্যূনতম ৬.৫ স্কোর তুলতে হবে অথবা টোয়েফল আইবিটি তে ন্যূনতম ৮৬ পেতে হবে।
* অথবা ফ্রেঞ্চ ভাষা দক্ষতা থাকতে হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া:

অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদন করতে ক্লিক করুন এখানে।  বিস্তারিত জানতে পড়ুন


x

সর্বশেষ সংবাদ