স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি করুন হাঙ্গেরির ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয়ে

স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি করুন হাঙ্গেরির ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয়ে
ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয়, হাঙ্গেরি  © সংগৃহীত

স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডিতে ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে হাঙ্গেরির ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশসহ যে কোনো আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী এ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের শেষ সময় আগামী ১৫ জানুয়ারি।

‘স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম স্কলারশিপ ২০২২-২৩’ এর আওতায় শিক্ষার্থীদের সম্পূর্ণ টিউশন ফি মওকুফ করা হবে। এছাড়াও আবাসন খরচ, স্বাস্থ্যবীমা ও উপবৃত্তিসহ নানান ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হবে।

এ স্কলারশিপটির আওতায় ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদভুক্ত বিষয়গুলো নিয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি করা যাবে। যেসব বিষয়ে অধ্যয়ন করা যাবে জানতে ক্লিক করুন এখানে

২০১৩ সাল থেকে ‘স্টাইপেন্ডিয়াম হাঙ্গেরিকাম স্কলারশিপ’ দিয়ে আসছে হাঙ্গেরি সরকার। তবে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা ২০১৯ সাল থেকে আবেদন করছেন। প্রতিবছর ৫ মহাদেশের প্রায় ৮০টি দেশের ৫ হাজার বিদেশি শিক্ষার্থী এ বৃত্তি নিয়ে হাঙ্গেরিতে পড়াশোনা করছেন।

অনলাইন আবেদনের পাশাপাশি আবেদন ও যাবতীয় শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, মার্কশিট, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সনদসহ অন্যান্য কাগজপত্রের হার্ড কপি বাংলাদেশের মাধ্যমিক ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চশিক্ষা বিভাগে জমা দিতে হবে।

ডেব্রেসেন বিশ্ববিদ্যালয় হাঙ্গেরির ডেব্রেসেন এ অবস্থিত একটি প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১৫৩৪ সালে প্রতিষ্ঠানটি যাত্রা শুরু করে।

সুযোগ-সুবিধাসমূহ:

* টিউশন ফি মওকুফ করা হবে।
* স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহের জন্য প্রতি মাসে ৪৩ হাজার ৭০০ হাঙ্গেরিয়ান ফোরিন্ট প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় সাড়ে ১১ হাজার টাকা।
* পিএইচডি-তে প্রতি মাসে ১ লক্ষ ৪০ হাজার হাঙ্গেরিয়ান ফোরিন্ট প্রদান করা হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় সাড়ে ৩৭ হাজার টাকা।
* বিনা মূল্যে আবাসন সুবিধা।
* স্বাস্থ্যবিমা।
* বিমানে যাতায়াতের খরচ প্রদান করা হবে।

আবেদনের যোগ্যতা ও শর্তাবলী:

* স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি এর যেকোনো একটিতে আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। একাধিক আবেদন করলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।
* অসম্পূর্ণ আবেদন গ্রহণযোগ্য নয়। আবেদনের হার্ড কপি মন্ত্রণালয়ে জমা না দেওয়া হলে আবেদন বিবেচনা করা হবে না।
* অনলাইনেও আবেদন করতে হবে।
* ইংরেজী দক্ষতা সনদ প্রদর্শন করতে হবে।
* আবেদনপত্রের হার্ড কপি সচিবালয়ের ২ নম্বর গেট সংলগ্ন অভ্যর্থনাকক্ষে সকাল ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত জমা দেওয়া যাবে। খামের ওপর প্রেরক, প্রাপক, আবশ্যিকভাবে ID/Tracking Number এবং প্রোগ্রামের নাম (স্নাতক/ স্নাতকোত্তর/পিএইচডি) উল্লেখ করতে হবে। হার্ড কপি মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৬ জানুয়ারি ২০২২, বিকেল ৪টা।
* স্নাতক পর্যায়ে কমবয়সীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া:

অনলাইনে আবেদন করা যাবে। আবেদন করতে ক্লিক করুন এখানে। বিস্তারিত জানতে পড়ুন


মন্তব্য

x