অস্ট্রেলিয়া সরকারের বৃত্তি নিয়ে পড়ুন আপনার পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ে

অস্ট্রেলিয়ায় স্কলারশিপ
স্নাতকোত্তর ও পিএইচডির জন্য ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া সরকার  © সংগৃহীত

স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি করার জন্য ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। রিসার্চ ট্রেনিং প্রোগ্রাম (আরটিপি) এর অধীনে প্রতিবছর অস্ট্রেলিয়া সরকারের এডুকেশন, স্কিল ও এমপ্লয়মেন্ট ডিপার্টমেন্ট এই বৃত্তিটি দিয়ে থাকে।

আরটিপি স্কলারশিপের অধীনে প্রার্থীরা কলা, ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার, গাণিতিক বিজ্ঞান, হেলথ এন্ড মেডিকেল সায়েন্স এবং জেনারেল সায়েন্স নিয়ে তাদের ডিগ্রি করতে পারবেন। স্নাতকোত্তর সর্বোচ্চ ২ বছর এবং পিএচডি ডিগ্রির মেয়াদ সর্বোচ্চ ৪ বছর।

অস্ট্রেলিয়ার ৪১টি বিশ্ববিদ্যালয় আরটিপি প্রোগ্রামের অধীনে শিক্ষার্থীদের ভর্তি নিয়ে থাকে। বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে বেশ ভাল অবস্থানে থাকা এই বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে রয়েছে বিশ্বমানের শিক্ষাদান পদ্ধতি।

আবেদনের যোগ্যতা:

স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামের জন্য প্রার্থীদের অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার সমমানের একটি স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। একই সাথে গবেষণা খাতে অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

আর পিএইচডি প্রোগ্রামের জন্য প্রার্থীর অবশ্যই প্রথম বা আপার সেকেন্ড ক্লাসের একটি স্নতক বা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। সাথে লাগবে ভালো একাডেমিক মান সম্পন্ন গবেষণা কাজ।

পাশাপাশি আরটিপি প্রোগ্রামের জন্য প্রার্থীর যথাযথ ইংরেজি দক্ষতাও থাকতে হবে।  

সুযোগ-সুবিধা: 

* সম্পূর্ণ টিউশন ফি দেয়া হবে।

* প্রত্যেক শিক্ষার্থী বার্ষিক শুল্কমুক্ত ১৭ লাখ ৮৮ হাজার টাকা (২৮ হাজার ৮৫৪ অস্ট্রেলিয়ান ডলার) পাবেন।

* এছাড়া হেলথ ইন্সুরেন্স ভাতা, ভ্রমন ভাতা ও গবেষণা ব্যয় ভাতা প্রদান করা হবে।  

আবেদনের সময়সীমা:

সময়সীমা একেক বিশ্ববিদ্যালয়ে একেক রকম। প্রার্থীরা পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে সময়সীমা সম্পর্কে জানতে পারবেন।   

আবেদন প্রক্রিয়া:

অস্ট্রেলিয়া সরকারের এই রিসার্চ স্কলারশিপ প্রোগ্রামে (আরটিপি) জন্য আবেদন এবং নির্বাচন প্রক্রিয়া আরটিপি তালিকাভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেদের তত্ত্বাবধানেই করে থাকে। তাই আবেদনের জন্য প্রার্থীকে প্রথমেই একটি পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয় বাছাই করতে হবে, যেখানে তিনি তার মাস্টার্স বা পিএইচডি ডিগ্রিটি করতে চান। এরপর ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুসারে আবেদন করতে হবে।

প্রার্থীরা সরাসরি তাদের নির্বাচিত বিশ্ববিদ্যালয়ের পোস্টগ্রাজুয়েট রিসার্চ অফিসের সাথে যোগাযোগ করলে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

স্কলারশিপটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন এই লিংকে। 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ