ম্যাথ না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং নয়: সব বিশ্ববিদ্যালয়ে স্মারকলিপি দেবে ভর্তিচ্ছুরা

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা
গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা  © ফাইল ছবি

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের বিজ্ঞান অনুষদে ম্যাথ না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে পড়ার সুযোগ না দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন ভর্তিচ্ছুরা। এই দাবি জানিয়ে গুচ্ছের সব বিশ্ববিদ্যালয়ে স্মারকলিপি দেবে ভর্তিচ্ছুরা। ইতোমধ্যে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গাণিতিক অনুষদের জন্য শুধুমাত্র যারা গণিত বিষয়ের উত্তর করেছেন তাদেরকেই ফলাফলের ভিত্তিতে সুযোগ প্রদানের জন্য জোর দাবি জানিয়েছে৷

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দেওয়া স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীরা জানিয়েছে, ২০২০-২০২১  শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পরীক্ষায় ফলাফলের ভিত্তিতে বিভাগ নির্বাচন সংক্রান্ত কিছু জটিলতা দেখা গিয়েছিল। কর্তৃপক্ষ ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে  অনুষ্ঠিত গুচ্ছ পরীক্ষায় পূর্বের ভুল সংশোধন এবং কোনো ধরনের জটিলতা না থাকার বিষয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে আশ্বস্ত করেছিল। তবে ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ থাকলেও অনেকে শর্ত সাপেক্ষে মূল বিষয় উত্তর করেনি। এরপরও তাদের ফলাফল প্রকাশিত হওয়ায় আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে শঙ্কিত।

স্বাভাবিকভাবেই ঢাবি, রাবি, জাবি'র মতো বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিত বিষয়ে উত্তর না করলে কোনো শিক্ষার্থী ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গাণিতিক অনুষদের কোনো বিভাগের জন্য যোগ্য হিসেবে মনোনীত  হয় না। তবুও গত বছর গুচ্ছে এর ব্যতিক্রম লক্ষ্য করা গেছে। অনেকেই গণিতের উত্তর না করেও ইঞ্জিনিয়ারিং ও গাণিতিক অনুষদের সকল বিষয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। এতে করে গণিতে উত্তর করার পরও অনেক শিক্ষার্থী ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গাণিতিক অনুষদে ভর্তির সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, সম্প্রতি ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। গণিতের প্রশ্ন তুলনামূলক কঠিন এবং কিছু প্রশ্ন ২০২১ সালের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত শর্ট সিলেবাসের বাহির থেকে  হওয়ায় স্বাভাবিক ভাবেই গণিতে উত্তরকারী শিক্ষার্থীদের প্রাপ্ত মোট নম্বর অন্যদের ( যারা গণিত ব্যতীত বাংলা / ইংরেজি উত্তর করেছেন) তুলনায় কম। তাই গত বছরের মতো এবারও যদি শুধু প্রাপ্ত গড় নম্বরের ভিত্তিতে প্রকৌশল এবং গাণিতিক অনুষদে শিক্ষার্থীদের ভর্তির সুযোগ দেওয়া হয়, তাহলে আবারও অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হবে গণিতে উত্তর করা শিক্ষার্থীরা। তাই ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গাণিতিক অনুষদের জন্য শুধুমাত্র যারা গণিত বিষয়ের উত্তর করেছেন তাদেরকেই ফলাফলের ভিত্তিতে সুযোগ প্রদান করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি৷

ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গাণিতিক অনুষদের প্রাণ এবং চালিকাশক্তি হলো গণিত। তাই গণিত বিষয়ে দক্ষতার পরীক্ষা না দিয়ে কেউ ভর্তির সুযোগ পেলে শিক্ষাব্যবস্থাকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেওয়া হবে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় যারা গণিতের উত্তর করেছে কেবলমাত্র তাদেরকেই ইঞ্জিনিয়ারিং এবং গণিত রিলেটেড বিষয় দেওয়ার দাবি জানানো হয়ম

স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীরা তিনটি দাবি উত্থাপন করেন। সেগুলো হলো—

১. যারা পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান এবং গণিত অংশের উত্তর করেছে তাদের সকল বিষয়ে পড়ার সুযোগ দিতে হবে।

২. যারা পদার্থ, রসায়ন গণিত এবং বাংলা অথবা ইংরেজি বিষয়ের উত্তর করেছে তাদের গাণিতিক অনুষদের বিষয়সমূহে আবেদনের সুযোগ দিতে হবে।

৩. যারা পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান এবং বাংলা অথবা ইংরেজি বিষয়ের উত্তর করেছে তারা কেবল জীববিজ্ঞান অনুষদের বিষয়সমূহে আবেদন করতে পারবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ