আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা

১১৭ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ৩৩তম ঢাবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ঢাবি দল  © সংগৃহীত

৪৪তম আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার (আইসিপিসি) চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে বিশ্বের ১১৭টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দল অংশ নিয়েছেন।  ১ অক্টোবর থেকে এ প্রতিযোগিতা শুরু হয়।

বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য মর্যাদাপূর্ণ এই প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার এবারের আসরে এশিয়া-ওয়েস্ট রিজিয়নে (পশ্চিমাঞ্চলে) প্রথম স্থানের অর্জনসহ বাংলাদের তিন বিশ্ববিদ্যায়ের স্থান হয়েছে।

এর মধ্যে ‘বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়’ দল প্রোগ্রামিংয়ে সাতটি সমস্যা সমাধান করে এশিয়া-ওয়েস্ট রিজিয়নে (পশ্চিমাঞ্চলে) প্রথম স্থানের অর্জন করে তালিকায় ২৮তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দল ছয়টি সমস্যা সমাধান করে অনার্স ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত হয়। তালিকায় ৩৩তম স্থান অধিকার করেছে ঢাবির প্রতিনিধি দল। তাছাড়া বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটি তলিকার সর্বশেষ অর্থাৎ ১১৭তম অবস্থানে রয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে রাশিয়ার মস্কোর ম্যানিজ আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেষ হয়েছে ২০২০ সালের এই প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়। রাশিয়ার ‘নিজনি নবগরাদ স্টেট ইউনিভার্সিটি’ ১২টি সমস্যার সমাধান করে ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলমের নেতৃত্বে ১৮ সদস্যবিশিষ্ট বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। প্রতিনিধিদলের নেতা হিসেবে এন এম জিয়াউল আলম অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

এদিকে, ২০২২ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশের এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটিতে  অনুষ্ঠিত হবে ৪৫ম আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা (আইসিপিসি)। ৪৪তম আইসিপিসির চূড়ান্ত পর্বে আইসিপিসি ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক উইলিয়াম বিল পাউচার সমাপনী অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন।

আইসিপিসি হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য কম্পিউটার প্রোগ্রামিংয়ের আন্তর্জাতিক সর্ববৃহৎ চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতা। সারা বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একটি মর্যাদাপূর্ণ প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা। 

আইবিএম এই প্রতিযোগিতার পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকে। আইসিপিসির সদর দপ্তর বেইলর বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত এবং এর ছয়টি মহাদেশে এর স্বায়ত্ত্বশাসিত অঞ্চল রয়েছে। বেইলর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক উইলিয়াম বি. পাউচার এর পরিচালক এবং অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্পিউটিং মেশিনারি (এসিএম) এর সৌজন্যে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ আগস্ট আন্তর্জাতিক কম্পিউটার প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক পর্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ১ম স্থান অধিকার করেছিল। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আর্থিক সহযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগ ১৪ আগস্ট অনলাইনে দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। পরে ১৬ আগস্ট প্রতিযোগিতার ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ১০৮টি পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। আঞ্চলিক পর্বে বিজয়ীরা  আইসিপিসির চূড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ