খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়েও পদ্মা সেতুর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে: ভিসি

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সভায় উপস্থিত রয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক  ড. মাহমুদ হোসেন
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সভায় উপস্থিত রয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহমুদ হোসেন  © সংগৃহীত

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বলেছেন, খুবির ওপরও পদ্মা সেতুর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে আমাদের ওপর দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি করা। আমরা সবাই যদি এক হয়ে কাজ করি তাহলে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় অভিষ্ট লক্ষ্য অর্জন করতে পারব।

শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানা উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. হোসনে আরা, ডিনবৃন্দ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপ্লিন প্রধান, ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পদ্মা সেতু নির্মাণে তার দৃঢ় ও দূরদর্শী ভূমিকার জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানান। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরই উপাচার্য সবাইকে মিষ্টিমুখ করান।

আরও পড়ুন: পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের দিনে কমেছে করোনা শনাক্ত

অধ্যাপক মাহমুদ হোসেন বলেন, পদ্মা সেতু সব ক্ষেত্রে আমাদের প্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। যেকোনো কাজে চ্যালেঞ্জ কীভাবে মোকাবেলা করতে হয় সে উদাহরণ পদ্মা সেতু থেকে নেওয়া যায়।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের সক্ষমতার প্রতীক, মনোবলের প্রতীক। এই সেতু নির্মাণ বাংলাদেশের মানুষের মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তন ঘটাবে। বিশ্বে আমরা গর্ব করে পরিচয় দিতে পারব, আমরা বাঙালি, আমরাও পারি। পদ্মা সেতুর মাধ্যমে দক্ষিণাঞ্চলের সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচন হলো। পদ্মা সেতু বিনিয়োগ বাড়াবে, শিল্পায়ন বাড়াবে, অর্থনীতিকে গতিশীল করবে।


x