বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে বউকে তালাকের চেষ্টা, মামলায় কারাগারে জবি ছাত্র

বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে বউকে তালাকের চেষ্টা, মামলায় কারাগারে জবি ছাত্র
লিখন সাকসেনা  © সংগৃহীত

যৌতুক ও নারী নির্যাতন আইনে স্ত্রীর করা মামলায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) দর্শন বিভাগের সাবেক এক শিক্ষার্থীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত। অভিযুক্ত লিখন সাকসেনা ৪০তম বিসিএসে শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছিলেন। 

জানা যায়, ২০২১ সালের ৪ জুন লিখন সাকসেনা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে স্ত্রীর পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। যৌতুকের জন্য তার স্ত্রীকে মারধর করতে থাকেন। একসময় স্ত্রীর পরিবারের কাছ থেকে দুই লাখ টাকা যৌতুকও আদায় করেন। পরবর্তীতে লিখন ৪০তম বিসিএসে শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হলে তার স্ত্রীকে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করতে চান। 

অভিযুক্তের স্ত্রী বলেন, যৌতুকের টাকার জন্য লিখন বিভিন্ন সময়ে আমাকে মারধর করে আসছিলো। আমাকে রেখে অন্য মেয়ে নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। কিন্তু সংসার টিকিয়ে রাখার স্বার্থে আমি সবকিছু সহ্য করে যেতাম। এখন সে বিসিএস ক্যাডারে সুপারিশ হওয়ার পর আমাকে তালাক দেয়ার তোড়জোড় করছে। 

রাজধানীর লালবাগ থানার ওসি এম এ মোরশেদ আলী বলেন, ভোররাতে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নারী নির্যাতন দমন আইনে আজকে আদালতে তোলা হলে আসামীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


x