খুবি বন্ধ হবে কিনা জানা যাবে বিকালে

বিশ্ববিদ্যালয়
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়  © সংগৃহীত

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি) বন্ধের বিষয়ে জুরুরি মিটিং আহ্বান করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আজ শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) বিকেল ৪টায় এই জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. খান গোলাম কুদ্দুস।

আজ বেলা সাড়ে ১১টায় মহাখালীতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা বলেন। তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেছে। স্কুল ও কলেজে সংক্রমণের হার বেড়ে গেছে। অনেক শিক্ষার্থী আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছে। এটা আশঙ্কাজনক। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলেছি। আগামী দুই সপ্তাহের (২১ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি) জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন: অনলাইনে বুয়েটের নবীন শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু কাল

মন্ত্রীর বক্তব্যের কিছুক্ষণ পরই মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধসহ নতুন কিছু প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আগামীকাল থেকে শুরু করে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবে।  এছাড়া সামাজিক/রাজনৈতিক/ধর্মীয়/রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে ১০০-এর বেশি জনসমাবেশ করা যাবে না বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। যারা এসব অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন তাদের টিকা সনদ থাকতে হবে।

আরও পড়ুন: শিক্ষামন্ত্রীর সাথে বৈঠক করতে ঢাকায় আসছে শাবি শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আসিফ ইনজামান হৃদয় বলেন, হল খোলা রাখলে আমাদের সুবিধা হবে। আপাতত দেখছি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হল খোলা রেখে সর্বশরীরে ক্লাস বন্ধ রেখেছে। আমাদের ও হল খোলা রাখা উচিত তা না হলে বাসায় ফিরে গেলে অনলাইনে নেটওয়ার্ক জনিত সমস্যার কারণে ক্লাস করতে অসুবিধা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জানুয়ারি চলমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে শিক্ষাকার্যক্রম নিয়ে অ্যাকাডেমিক প্রধানদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ক্লাস-পরীক্ষা আপাতত সশরীরে চালু রাখা, একই সঙ্গে অনলাইনের প্রস্তুতি এবং প্রয়োজনে মিক্সড পদ্ধতি অনুসরণের সম্ভাব্য দিক আলোকপাত করেন।  করোনা পরিস্থিতি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে পর্যবেক্ষণ এবং যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়েও উপাচার্য বেশকিছু দিক-নির্দেশনা দেন।


x

সর্বশেষ সংবাদ