বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি মূল্যায়ন

দেশের ৪৬ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সেরা বশেমুরকৃবি, চবি ও কুয়েট

দেশের ৪৬ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সেরা বশেমুরকৃবি, চবি ও কুয়েট
বশেমুরকৃবি, চবি ও কুয়েট লোগো  © লোগো

বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) মূল্যায়নে দেশের ৪৬টি স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে প্রথম হয়েছে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরকৃবি)। ২০২০-২১ অর্থবছরে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) আওতাধীন স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে ৯৮.৩৮ নম্বর পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। 

সম্প্রতি ইউজিসির মূল্যায়ন প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সরকারি দফতর-সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের দক্ষতা ও দায়বদ্ধতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে এই বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির (এপিএ) প্রবর্তন করা হয়। 

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন মূল্যায়নে ৯৩ দশমিক ৮ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। ৯২.১৫ নম্বর পেয়ে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট)। 

এছাড়া ৮৭ দশমিক ৭ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৮৬ দশমিক ৮ নম্বর নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছে সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, সপ্তম অবস্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়, অষ্টম অবস্থানে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, নবম অবস্থানে রয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, দশম অবস্থানে রয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

১১তম অবস্থানে রয়েছে খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ১২তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়, ১৩তম অবস্থানে রয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৪তম অবস্থানে রয়েছে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৫তম অবস্থানে রয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৬তম অবস্থানে রয়েছে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ১৭তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস, ১৮তম অবস্থানে রয়েছে শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, ১৯তম অবস্থানে রবীন্দ্রনাথ বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ, ২০তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়।

এছাড়া ২১তম অবস্থানে চট্টগ্রাম ভেটেনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়, ২২তম অবস্থানে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ২৩তম অবস্থানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ২৪তম অবস্থানে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ২৫তম অবস্থানে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, ২৬তম অবস্থানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ২৭তম অবস্থানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, ২৮তম অবস্থানে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ২৯তম অবস্থানে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, ৩০তম অবস্থানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোম্পেস বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে।

এদিকে ৩১তম অবস্থানে রয়েছে রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ৩২তম অবস্থানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৩তম অবস্থানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৪তম অবস্থানে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৫তম অবস্থানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৬তম অবস্থানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৭তম অবস্থানে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৮তম অবস্থানে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৩৯তম অবস্থানে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৪০তম অবস্থানে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

তবে ৪১তম অবস্থানে রয়েছে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৪২তম অবস্থানে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৩তম অবস্থানে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৪তম অবস্থানে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ৪৫তম অবস্থানে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং সর্বশেষ ৪৬তম অবস্থানে রয়েছে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ