ইউজিসির তদন্তদলের মুখোমুখি রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারহানা

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের তদন্তদলের মুখোমুখি হন শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন
বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের তদন্তদলের মুখোমুখি হন শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন  © টিডিসি ফটো

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল কেটে দেওয়ার ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) প্রতিনিধিদল। বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দুই সদস্যের প্রতিনিধিদল বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাস শাহজাদপুর মহিলা কলেজে এসে তদন্ত শুরু করে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, তদন্তদলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগমের নেতৃত্বে পাবলিক পরিচালক জামিলুর রহমান ও সহকারী পরিচালক ইউসুফ হাসান সকাল থেকে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন। তদন্ত প্রতিনিধিদল ভুক্তভোগী ১৪ শিক্ষার্থীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলছেন।

ইউজিসির প্রতিনিধিদল ভুক্তভোগী ১৪ শিক্ষার্থী, প্রতক্ষ্যদর্শী ও ঘটনার দিন পরীক্ষার হলে দায়িত্বপ্রাপ্তসহ চলমান আন্দোলনের মুখপাত্রদের মৌখিক ও লিখিত বক্তব্য গ্রহণ করে তদন্তদল।

পরে এদিন দুপুরে তদন্তদলের মুখোমুখি হন অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন। অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম ঢাকা থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হলেও তদন্তদলের অপর দুই সদস্য শাহজাদপুরে সরাসরি তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এদিকে, কর্তৃপক্ষের অনুরোধে ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দেওয়ায় বুধবার শিক্ষার্থীরা কোনো আন্দোলন যাননি। চুল কাটার ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের স্থায়ী বরখাস্তের দাবিতে শিক্ষার্থীরা গত একমাস ধরে আন্দোলন করে আসছে।

এর আগে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের ১৪ শিক্ষার্থীর মাথার চুল ওই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন কেটে দেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনার প্রতিবাদে ২৮ সেপ্টেম্বর সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা সব পরীক্ষা বর্জন করে একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন।


মন্তব্য

x