জ্ঞান-বিজ্ঞান নির্ভর আলোকিত সমাজ গড়তে হবে: উপাচার্য

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান  © সংগৃহীত

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান বলেছেন, জ্ঞান-বিজ্ঞান নির্ভর আলোকিত সমাজ প্রতিষ্ঠাই পথ চলা হওয়া উচিত। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোসহ সর্বত্র যদি জ্ঞান-বিজ্ঞানের আলোরধারা অব্যাহত রাখা যায়, তাহলে দেশ সম্পদশালী হবে।

তিনি বলেন, অন্যথায় বাজার অর্থনীতির যে ধারা তৈরি হয়েছে, পণ্যের প্রভাব সৃষ্টি হচ্ছে- এ কারণে আমরা ক্রমাগত অর্থবিত্তের পেছনে ছুটছি, এই অসুস্থ ধারা যতবেশি চলবে, ততবেশি জ্ঞান এবং বিজ্ঞানের সমাজ বিনির্মাণের পথ রুদ্ধ হবে।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (সিইডিপি) এর ১৫তম ব্যাচের শিক্ষক প্রশিক্ষণে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য।

জুম অ্যাপের মাধ্যমে দেশব্যাপী ইংরেজি, ব্যবস্থাপনা, দর্শন ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের ১৪৫ জন শিক্ষক এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন। বিষয়ভিত্তিক এই শিক্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানটি অনলাইনে গত ২৮ সেপ্টেম্বর শুরু হয়। ২৮ দিনব্যাপী এই প্রশিক্ষণের সমাপনী দিন ছিল আজ ২৬ অক্টোবর।

প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। সিইডিপির প্রজেক্ট শেষ হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব অর্থায়নে প্রশিক্ষণ চলবে। প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য ফান্ডে ব্যয় সঙ্কোচন করে প্রশিক্ষণ অব্যাহত রাখা হবে, এটি বন্ধ হবে না। আপনাদের মনে রাখতে হবে- এই বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশজুড়ে বিস্তৃত।

তিনি বলেন, আপনারাও এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অবিচ্ছেদ্য অংশ। সময়ে সময়ে আপনাদের সৃজনশীল চিন্তা-ভাবনা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থে বিনিময় করতে পারেন। এতে অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে।

উপাচার্য আরও বলেন, শিক্ষকরা শুধু ক্লাশরুমেই শিক্ষা দেবেন তা নয়, এটি আমাদের পবিত্র দায়িত্ব- যেন এই সমাজ সঠিক ধারায় পরিচালিত হয়, এই সমাজ যেন জ্ঞান-বিজ্ঞানভিত্তিক হয়, সাম্প্রদায়িকতামুক্ত হয়। আমরা চাইবো গণতান্ত্রিক, অসাম্প্রদায়িক চমৎকার সমাজ নির্মিত হোক, যেখানে সবাই মিলে মিশে থাকবে। এটি নিশ্চিত করতে পারলেই আমাদের আগামী প্রজন্ম মনে রাখবে। তা না হলে তারা আমাদের দায়ী করবে।

৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময় আমরা এই দেশ পেয়েছি। আমাদের মনে রাখতে হবে এই দেশ পেতে রক্তের ঋণ আছে। অন্য দেশের চেয়ে আমাদের পার্থক্য এই- আমাদের মানবিক হতে হবে, ধর্মনিরপেক্ষ হতে হবে, অসাম্প্রদায়িক হতে হবে। এর কোন বিকল্প নেই- বলেন উপাচার্য

স্নাতকোত্তর শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্রের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক আবদুস সালাম হাওলাদার, সিইডিপির প্রকল্প পরিচালক (পিডি) ড. এ. কে. এম. মুখলেছুর রহমান। কোর্স উপদেষ্টা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক ও ইউজিসি অধ্যাপক ড. ফখরুল আলম প্রমুখ।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ

x