তিতুমীর কলেজে ফেনী শিক্ষার্থীদের নতুন কমিটি

তিতুমীর কলেজে ফেনী শিক্ষার্থীদের নতুন কমিটি
তিতুমীর কলেজে ফেনী সমিতির নতুন কমিটি  © ফাইল ছবি

রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে ফেনী জেলার শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‌‘তিতুমীর কলেজ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব ফেনী’র ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সভাপতি করা হয়েছে আরিফুল ইসলামকে (আরিফ খাঁন জয়)। আর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন আমিন উল্ল্যাহ আহাদ আলমাস। 

গতকাল সোমবার (১৮ অক্টোবর) এ কমিটির ঘোষণা করা হয়।

এর আগের কমিটি ছয় মাসের জন্য ঘোষণা করা হলেও করোনার কারণে সময়মত নতুন কমিটি দেওয়া সম্ভব হয়নি। সংগঠনের সদ্য দায়িত্ব পাওয়া দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ জাবেদ ইকবাল এ বিষয়ে বলেন, গতবারের কমিটি ছিলো ছয়মাস মেয়াদি, কিন্তু করোনা মহামারিসহ আরো কিছু কারণে আমরা সময়মত কমিটি দিতে পারিনি। তবে, আমরা করোনার মধ্যে নতুন সদস্যদের যুক্ত করেছি।

এ কমিটি কী ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করবে, এমন প্রশ্নের জবাবে জাবেদ বলেন, ফেনী জেলার তিতুমীর কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের যাবতীয় বিষয়ে আমরা সহযোগিতা করবো। আমরা তাদের ভর্তি থেকে শুরু করে কর্মক্ষেত্রে চাকরি পাওয়া পর্যন্ত বিভিন্ন ধাপে সহযোগিতা করার চেষ্টা করবো।

সামাজিক কাজে যুক্ত হবে সংগঠনটি:

বিতর্ক প্রতিযোগিতা, নাট্যচর্চা, ক্যারিয়ার বিষয়ক নানান ধরনের চর্চাসহ অন্যান্য বিষয়ে অবদান রাখতে চায় ‘তিতুমীর কলেজ স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব ফেনী’।

সংগঠনটির দপ্তর সম্পাদক আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, তাদের সংগঠন নানান ধরনের সামাজিক কাজে যুক্ত হবে। ঢাকাস্থ ফেনী সমিতির সাথে সমন্বয় করবে তিতুমীরের সদস্যরা।

ভিন্নতা:

রক্ত ও বৃত্তিদান সম্পাদক নামে দুটি পদ যুক্ত করা হয়েছে সদ্য ঘোষিত এই সংগঠনে। দপ্তর সম্পাদকের দাবি, এই উদ্যোগ অন্যদের চাইতে কিছুটা ভিন্ন। তার মতে, রক্তের মতো একটা প্রয়োজনীয় জিনিস যাতে সহজেই পাওয়া যায়, তাই আমরা এই পদটি সংযুক্ত করেছি। আমরা আমাদের সংগঠনের মাধ্যমে নিজেরা যেমন অন্যকে রক্ত সংগ্রহে সহযোগিতা করবো তেমনি অন্যদেরও রক্তদানে উৎসাহ প্রদান করবো। তাছাড়া আমাদের যেসব দরিদ্র শিক্ষার্থী রয়েছে, আমরা তাদের বৃত্তি প্রদান করবো। আমরা সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীদের তালিকা আমাদের ঢাকাস্থ প্রধান সংগঠনকে প্রদান করবো। তাদের কার্যক্রমে সহযোগিতা করবো।

নতুন এই কমিটিতে ছাত্র বৃত্তি বিষয়ক দায়িত্ব পেয়েছেন জুবায়ের আল মাহমুদ এবং সেচ্ছায় রক্তদান বিষয়ক সম্পাদক হয়েছেন আবুল খায়ের রেদোয়ান।

সদস্যপদ পেলেন যারা:

কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও ৭৩ জন বিভিন্ন দায়িত্ব পেয়েছেন। এর মধ্যে সাধারণ সদস্য রয়েছেন ১২ জন।

বাকিদের মধ্যে নয়জন সহ-সভাপতি, যুগ্ম সম্পাদক পাঁচজন, সাংগঠনিক সম্পাদক চারজন, সহ-সম্পাদক আটজন।

অন্যদের মধ্যে রয়েছেন- ইস্রাফিল ছোটন (সহ সভাপতি), শাহ সৈকত (যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক), মো. মাসুদ রানা পাটোয়ারী (সাংগঠনিক সম্পাদক), মোহাম্মদ রায়হান (প্রচার সম্পাদক), রায়হান আহমেদ (গ্রন্থ ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক), গোলাম সরওয়ার (অর্থ সম্পাদক), মাহমুদুল হাসান (ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক), শাওন আল জুবায়ের (ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক), আকরাম হোসেন শেহজাদ (তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক), জহিরুল ইসলাম হাসিব (শিক্ষা ও সাহিত্য বিষয় সম্পাদক) ও ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক মিহি আলম।

সভাপতি-সম্পাদকের স্বাক্ষরে কমিটি কেন?

কমিটি ঘোষণা ক্ষেত্রে সাধারণত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর থাকেনা। কিন্তু ঘোষিত ফেনী শিক্ষার্থীদের এই সংগঠনে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংগঠনটির সদস্য দায়িত্ব পাওয়া দপ্তর সম্পাদক বলেন, আমাদের সংগঠনের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিলো অনেক আগে। পুরনো যারা ছিলো তারা নানান কারণে গড়িমসি করছিলেন। আমাদের নতুন একটি কমিটি করা জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছিলো।

তিনি আরো বলেন, তিতুমীরে ফেনী জেলার অনেক ছাত্র রয়েছে, তারা কলেজে এসে নিজের সংগঠনের কাউকে খুঁজে পেতো না। আমাদের কাছে এমন অনেক অভিযোগ আছে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছিলো যে, নতুন কমিটি ঘোষণা করা সময়ের দাবি হয়ে দাঁড়িয়েছিলো। তাই আমরা এমন সিদ্ধান্ত নেই। এবং কমিটি ঘোষণা করি। এখন আমাদের মধ্যে সব সমস্যার সমাধান হয়েছে। সবাই বিষয়টিকে ভালোভাবে নিয়েছে।


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ