বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আনন্দে ২৬ কি.মি. পথ হেঁটে ক্যাম্পাসে এক শিক্ষার্থী

ইবি
এক বন্ধু মজা করে ৫ টাকার দুটি নতুন নোট উপহার দিয়েছেন  © টিডিসি ফটো

করোনায় দীর্ঘ দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর খুলেছে প্রিয় ক্যাম্পাস। সেই আনন্দে ২৬ কিলোমিটার পথ হেঁটে ক্যাম্পাসে যান ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক শিক্ষার্থী। ওই শিক্ষার্থী নাম আহমেদ তৌফিক। তিনি আইন বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

দীর্ঘ দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর গত ৯ অক্টোবর ইবির আবাসিক হল খুলে দেওয়া হয়। সেই আনন্দে কুষ্টিয়া শহরের বউবাজার এলাকার মেস থেকে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে পায়ে হেঁটে ক্যাম্পাসে রওনা দেন তৌফিক। টানা ৬ ঘণ্টা পায়ে হেঁটে দীর্ঘ ২৬ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ক্যাম্পাসে পৌঁছান তিনি।

হেঁটে ক্যাম্পাসে পৌঁছানোর সময় তৌফিকের সেলফি

 

এমন ঘটনার অভিজ্ঞতা নিয়ে আহমেদ তৌফিকের সঙ্গে কথায় দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসের। তৌফিক বলেন, সেদিন সবাই দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পাসে ফিরছিল। ক্যাম্পাসে এক আনন্দঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। একটু ব্যতিক্রমভাবে সেই আনন্দে অংশ নিতে ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে হাঁটা শুরু করি। কুষ্টিয়া থেকে ক্যাম্পাসের দূরত্ব ২৪ কিলোমিটার। আর আমার মেস থেকে সেটা ২৬ কিলোমিটারের রাস্তা। হেঁটে হেঁটে অবশেষে ক্যাম্পাসে পৌঁছি ১১টা ৪৫ মিনিটে।

কেমন ছিল এতো দূর হাঁটার অভিজ্ঞতা এমন প্রশ্নে তৌফিক জানান, খুব সকালে রওনা দিয়েছি। রাস্তা এক রকম ফাঁকা ছিল। জীবনে হয়তো এতো সকালে রাস্তার পাশের গ্রামের দৃশ্য দেখা হতো না। হাঁটার পথে বিভিন্ন দোকানে থেমেছি। চা খেয়েছি, পানি খেয়েছি আবারও হাঁটা শুরু করেছি।

তৌফেকের এই ঘটনা বন্ধু, সহপাঠী ও ক্যাম্পাসের সবার মাঝে আলোড়ন ফেলে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে তাকে বরণ করে নেন বন্ধুরা। কেউবা মজা করে উপহার দিয়েছেন ৫ টাকার দুটি নতুন নোট।

তৌফিকের এমন ঘটনাকে নিয়ে তার বন্ধু বাংলা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী অনি আতিকুর রহমান এক ফেইসবুক পোস্টে লেখেন, ‘ক্যাম্পাসে তৌফিকের এমন অনেক পাগলামী আছে। ওর পাগলামিটাই একটা ব্র্যান্ড।’


মন্তব্য

x

সর্বশেষ সংবাদ